বিনোদনভিডিওসিনেমাসিরিয়াল

জমজমাট পুজো শপিং শ্রীময়ীর! নামী দোকান নয়, গড়িয়াহাটের ভিড় ফুটপাত থেকেই কিনলেন ৫টি শাড়ি

দরজায় কড়া নাড়ছে বাঙালির প্রিয় উৎসব দুর্গাপুজো। তাই শেষ মুহূর্তের শপিংয়ে খামতি রাখতে চাইছেন না কেউই। তালিকায় রয়েছেন সেলিব্রেটিরাও। কিন্তু শুটিংয়ের চাপের মধ্যে সুযোগ পেলেই টুকটাক শপিং সেরে ফেলছেন তারকারাও। সেই তালিকায় রয়েছেন শ্রীময়ী সিরিয়াল খ্যাত বাংলার প্রথম সারির অভিনেত্রী ইন্দ্রাণী হালদার। তবে তাঁর গন্তব্যস্থল শহরের কোনো নামী দামী দোকান নয় বরং ছিল বাসন্তী দেবী কলেজ লাগোয়া গড়িয়াহাটের ফুটপাতে বসা বেনামী শাড়ির দোকান।

তাড়াতাড়ি শুটিং শেষ করে সম্প্রতি গড়িয়াহাট মার্কেটে গিয়ে আর পাঁচজনের কেনাকাটা করতে মানুষের ভীড়ে মিশে গিয়েছিলেন তিনি। প্রথমে ভেবেছিলেন মাস্ক পরে থাকায় কেউ হয়তো চিনতে পারবেন তাঁকে। কিন্তু তাঁর ধারণা যে ভুল ছিল তার প্রমাণ পেলেন হাতে নাতে। গাড়ি থেকে নেমে বাসন্তী দেবী কলেজের সামনে দিয়ে হাটতে শুরু করেছিলেন সবে। এর মধ্যেই আশেপাশের দোকানদারা ঠিক চিনে ফেলেন তাঁকে।

সবাই মিলে হাঁক ডাক শুরু করে দেন তাদের দোকান থেকে শাড়ি কেনার জন্য। প্রিয় অভিনেত্রীকে দেখতে ভিড় জমে যায় গড়িয়াহাট চত্বরে।সকলের সাথে দেখা করে ভিড় ঠেলে শপিং করতে ব্যাস্ত হয়ে পড়েন সকলের প্রিয় শ্রীময়ী ওরফে ইন্দ্রাণী হালদার। ধারাবাহিকের মেকআপ রুমে বসেই সেই অভিজ্ঞতা সকলের সাথে ভাগ করে নিয়েছেন অভিনেত্রী।

 

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Star Jalsha (@starjalsha)

স্টার জলসার ফেসবুক পেজ থেকে শেয়ার করা হয়েছে সেই ভিডিও। সেখানে তিনি জানিয়েছেন সেদিন গড়িয়াহাট মার্কেট থেকে কম দামে অনেক সুন্দর শাড়ি কিনেছেন তিনি। সেইসাথে দোকানদারদের শাড়ির কালেকশনেরও দারুণ প্রশংসা করেছেন অভিনেত্রী। এছাড়াও অভিনেত্রী জানান তিনি গড়িয়াহাটে নামতেই ফুটপাতের শাড়ি বিক্রেতারা ততক্ষণে তাঁকে দেখে চিনতে পেরে গিয়েছিলেন।

তাঁকে ডেকে সকলে বলতে শুরু করে দিয়েছিলেন ‘দিদি আমাদের থেকে নিয়ে দেখুন! ভাল শাড়ি পাবেন।’ দোকানদার ডাকে সাড়া দিয়ে অভিনেত্রীও শর্ত দেন তিনি পাঁচটি শাড়ি কিনবেন তবে পাঁচটি আলাদা দোকান থেকে। সেইসাথে তিনি সকলকে কথা দিয়েছেন পুজোতে ওই শাড়ি তিনি পরবেন এবং ছবি তুলে বিক্রেতাদের পাঠাবেন। এছাড়া তিনি জানান ইতিমধ্যেই কয়েকটি শাড়ি পরে ‘শ্রীময়ী’ ধারাবাহিকের জন্য শুটিংও সেরেছেন তিনি।

Related Articles

Back to top button