খবরভাইরালভিডিও

ভারতীয় সেনাকে কুর্নিশ! গর্ভবতী মহিলাকে কাঁধে নিয়ে ৫ কিমি পথ পাড়ি দিল জওয়ানরা

আমরা যাতে দেশে নিশ্চিন্তে বিশ্বাস করতে পারি ও দেশ যাতে সুরক্ষিত থাকে তার জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে চলেছে ভারতীয় সেনা (Indian Army)। তবে দেশের রক্ষার সাথে আরো নানান কাজের দ্বারা গোটা দেশবাসীর মন জিতে নেয় এই ভারতীয় সেনা জওয়ানরা। যুদ্ধ পরিস্থিতি থেকে শুরু করে বিপর্যয় সর্বত্রই সাধারণ মানুষের পাশে হাজির রয়েছে ভারতীয় সেনারা। ইন্টারনেটে হাজারো ভাইরাল খবরের (Viral News) মধ্যে প্রায়শই ভারতীয় সেনার কিছু খবর মেলে যেখানে সাধারণ মানুষের প্রাণ বাঁচানো থেকে শুরু করে তাদের উপকার করতে শোনা যায় ভারতীয় সেনার জওয়ানদের।

কিছুদিন আগেই দিল্লি মেট্রো স্টেশনে (Delhi Metro) এক ব্যক্তির প্রাণ বাচিয়েছিল সিআইএসএফ জওয়ানরা। দিল্লির এক ব্যস্ত মেট্রো স্টেশনে হটাৎই কাঁপতে কাঁপতে মুখ থুবড়ে মাটিতে পরে যান এক ব্যক্তি। তৎক্ষণাৎ পরিস্থিতি সামাল দিতে আসেন কর্মরত দুই CISF জওয়ান। পরিস্থিতি বুঝতে পেরে ওই ব্যক্তিকে CPR দিতে থাকেন জওয়ানরা। যার ফলে প্রাণে বেঁচে যান দিল্লির সত্যনারায়ণ নামের এক বাসিন্দা। এরপর দ্রুত ব্যক্তিকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় ও তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়।

সম্প্রতি ভারতীয় সেনা আবারো মন জিতে নিল দেশবাসীর। জম্মু কাশ্মীরে (Jammu & Kashmir) বতর্মানে চলছে ভারী তুষারপাত। সেখানে কুপওয়ারা নামের এলাকায় ভারী তুষারপাতের (Snowfall) কারণে রাস্তা বরফে ঢেকে গিয়েছে, ব্যাহত হয়ে পড়েছে যান চলাচল। এদিকে এই পরিস্থিতিতে আটকে পড়েছিলেন এক গর্ভবতী মহিলা (Pregnent Lady)। সেই মহিলাকে হাসপাতালে নিয়ে যাবার জন্য অ্যাম্বুলেন্স ডাকা হলেও রাস্তা দিয়ে পৌঁছতে পারেনি অ্যাম্বুলেন্স। তখন মহিলাকে স্ট্রেচারে তুলে কাঁধে তুলেনেন ভারতীয় সেনাবাহিনীর জওয়ানরা।

এরপর বরফে মোড়া দুর্গম রাস্তা পার করে ৫ কিমি দূরে দাঁড়িয়ে থাকা অ্যাম্বুলেন্স পর্যন্ত ওই গর্ভবতী মহিলাকে পৌঁছে দেন জওয়ানরা। এই গটনার একটি ভিডিও নেটমাধ্যমে প্রকাশ করা হলে আবারো নেটিজেন তথা দেশবাসীর মন জিতে নিয়েছে সেনাবাহিনী। নেটিজেনরা সেনাবাহিনীর জওয়ানদের কুর্নিশ জানিয়েছেন।

ভাইরাল ভিডিওতে (Viral Video) দেখা যাচ্ছে কিভাবে স্ট্রেচারে করে কাঁধে তুলে নেওয়া হয়েছে মহিলাকে। এরপর তারা বরফ ঢাকা রাস্তা দিয়েই বয়ে নিয়ে যাচ্ছেন মহিলাকে। এই ঘটনার ছবি ও ভিডিও সরে করেছেন এএনআই (ANI)। যা শেয়ার হবার পর থেকেই ভাইরাল হয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে।

Related Articles

Back to top button