গানবিনোদন

‘আমাদের বাড়িতে চাল, ডাল নেই, ভাতও রান্না হয় না’! দিদি নাম্বার ১-এ ফাঁস ইমনের হাঁড়ির খবর

বাংলা টেলিভিশনের অন্যতম জনপ্রিয় গেম শো হল টলি অভিনেত্রী রচনা বন্দোপাধ্যায় সঞ্চালিত দিদি নাম্বার ওয়ান (Didi no one)। এই শোতে প্রতি সপ্তাহেই অসংখ্য আমজনতা থেকে শুরু করে এসে হাজির হন একাধিক জনপ্রিয় সেলিব্রেটি জুটি। এমনিতে সেলিব্রেটিদের ব্যাক্তিগত জীবন নিয়ে অনুরাগীদের উৎসাহের অন্ত নেই। আর সেলিব্রেটিদের হাঁড়ির খবর জানার জন্য রচনা বন্দোপাধ্যায়ের (Rachna Banerjee) এই দিদি নম্বর চেয়ে বড় কোনো বিকল্প নেই।

প্রসঙ্গত সদ্য গিয়েছে রঙের উৎসব। তাই হোলি উপলক্ষে জি বাংলার পর্দায় তিন দিনের হোলি স্পেশাল এপিসোড ‘রাঙিয়ে দিয়ে যাও’ এর আয়োজন করা হয়েছিল। এই স্পেশাল এপিসোডেই অনান্য একাধিক তারকা জুটির মতোই সম্প্রতি হাজির হয়েছিলেন বাংলা ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় মিউজিক্যাল জুটি ইমন চক্রবর্তী (Iman Chakraborty) এবং তার স্বামী নীলাঞ্জন ঘোষ(Nilanjan Ghosh)।

সবেমাত্র একবছর সম্পন্ন হয়েছে ইমন নীলাঞ্জনের বৈবাহিক জীবনে। আর এই একবছরে ঠিক কতটা সাংসারি হলেন জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত শিল্পী ইমন! এদিন দিদি নম্বর ওয়ানের মঞ্চে ইমন নীলাঞ্জনের সংসারের একের পর এক সিক্রেট ফাঁস করলেন রচনা বন্দোপাধ্যায়। যা শুনে খোদ অভিনেত্রীরই কপালে হাত পড়ে গিয়েছে।

এদিন ইমন জানান,বিয়ের পর থেকে এই এক বছর দু মাসের সংসার জীবনে মাত্র দুদিনে দুটি পদ তিনি রান্না করেছেন। তার একটি ডিমের কোনো একটি রান্না এবং অপরটি ছিল মাংসের কোনও পদ। তাহলে সারাদিন এই জুটি খাওয়া দাওয়া করেন কীভাবে! উত্তরে ইমন জানান আসলে তার খুব একটা রান্না ঘরে ঢোকার প্রয়োজন হয় না। কারণ তাদের জন্য দুবেলা খাবার আসে নীলাঞ্জনের বাড়ি থেকে।

এরপর ফাঁস হয় আরও এক চমকপ্রদ রহস্য। জানা যায় যেহেতু ইমনের বাড়িতে কোনো রান্না বান্নার পাটই নেই তাই তার রান্না ঘরে চাল, ডাল, তেল, হলুদ কিছুই নেই! এখানেই শেষ নয় অবাক হয়ে রচনা প্রশ্ন করেন, হঠাৎ অতিথি আসলে কি করেন তারা? সাথে সাথে ইমনের উত্তর, সুইগি! পাশ থেকে আবার নীলাঞ্জন জানান, এমনো হয়েছে যে অতিথি এসে নিজে রান্না করে খেয়েছেন। একথা শুনে রচনা জানতে চান এসব সত্যি! তখন রচনাকে আমন্ত্রণ জানিয়ে গায়িকা বলেন, তুমি একদিন এসো আমাদের বাড়িতে। শুনেই হাত তুলে দিলেন রচনা।

Related Articles

Back to top button