বিনোদনভিডিওসিনেমা

সবথেকে বাজে কিস! আপত্তি থাকলেও কে কার কথা শোনে, রানী মুখার্জীকে জোর করেই চুমু খান সাইফ

বলিউডের অন্যতম সুপারহিট জুটি হলেন সাইফ আলি খান (Saif Ali Khan) এবং রানি মুখার্জি (Rani Mukherjee)। হম তুম’, ‘তা রা রম পম’, ‘থোড়া পেয়ার থোড়া ম্যাজিক’- সহ একাধিক ছবিতে তাদের সম্পর্কের রসায়ন ঝড় তুলেছিল বড়পর্দায়। রানি এবং সাইফ উভয়ের কেরিয়ারেই অন্যতম মাইলস্টোন সিনেমা হল ‘হাম তুম।’ এই সিনেমায় তাদের জুটির রসায়ন ছিল চোখে পড়ার মতো।

দীর্ঘদিন পর ফের একবার রূপোলি পর্দায় ফিরছেন রানি এবং সাইফ। আগামী, ১৯ নভেম্বর মুক্তি পেতে চলেছে তাদের আসন্ন সিনেমা ‘বান্টি অর বাবলি ২’(Bunty Aur Bably)। বর্তমানে এই ছবিরই প্রমোশনে ব্যস্ত রয়েছেন তারা।সম্প্রতি এক ইউটিউব চ্যানেলে জমাটি আড্ডা বলছিলেন দু’জনে। সেখানেই দুই বন্ধুর আড্ডায় উঠে আসে ১৪ বছর আগের এক মজাদার ঘটনা।

পুরনো স্মৃতি হাতড়াতে হাতড়াতে তাদের দুজনের মুখেই উঠে এল ‘হম তুম’ (Hum Tum) টাইটেল গানের দৃশ্যের শ্যুটিংয়ের গল্প। কথায় কথায় সাইফ বললেন সকালে সেটে পৌছাতে রানি নাকি তার সাথে খুবই মিষ্টি করে কথা বলতে শুরু করেন। কুশল সংবাদ নেওয়া থেকে শুরু করে সেটে আসার সময়ে গাড়িতে তাঁর সময় কেমন কেটেছে এমনই নানান প্রশ্ন। তাতেই প্রথমে কারণ বুঝতে না পেরে খানিকটা হতভম্ব হয়ে যান সাইফ।

যদিও তার খানিক পরেই আসল কারণ বুঝতে পারেন তিনি। সাইফ জানান রানি নাকি আচমকা তার কাছে আবদার করে বলেন,’তুমি বলে দাও যে তুমি চুম্বন দৃশ্যে অভিনয় করতে চাও না।’ যা শুনে মুশকিলে পড়ে যান সাইফ। একদিকে নায়িকার আপত্তি অন্য দিকে বসের নির্দেশ, কোনদিকে যাবেন। শেষমেষ সোজা সাপ্টা জবাবে সাইফ জানিয়ে দেন ‘না আমি এ সব বলতে পারব না। আমাকে আমার বস নির্দেশ দিয়েছেন।’

যা শুনে রানি বলেন , ‘আমার মনে হয় না যে আমি পর্দায় চুমু খেতে সাবলীল।’ এর পরেও আরও দু’এক বার রানি তাঁকে বোঝানোর পরে চেষ্টা করেছিলেন। শেষমেষ প্রবল অনিচ্ছা নিয়েই বাধ্য হয়েই এই দৃশ্য করেছিলেন তারা। এপ্রসঙ্গে রানির সংযোজন ‘তার পরে আমরা যে চুমু খেলাম, সেটি ভারতের চলচ্চিত্রের ইতিহাসে সব থেকে বাজে চুমু।’ রানির দাবি, তিনি অত্যন্ত অস্বস্তি বোধ করছিলেন। তার সাইফও বলে ওঠেন ,‘তুমি অস্বস্তিতে ছিলে বলে আমারও অস্বস্তি হচ্ছিল।’

Related Articles

Back to top button