গসিপবিনোদন

শুরুতেই পাননি সাফল্য! লড়াই করেই আজ ‘কমেডি কিং’ কপিল শর্মা, রইল সেই সংগ্রামের অজানা কাহিনী

এই মুহূর্তে যদি দেশের সেরা কমেডিয়ানের (Comedian) নাম জিজ্ঞেস করা হয়, তাহলে হয়তো সবাই একবাক্যে কপিল শর্মার (Kapil Sharma) নাম নেবেন। এক ডাকে তাঁকে এখন সবাই চেনেন। ‘দ্য কপিল শর্মা শো’য়ের পর তো শুধুমাত্র সাধারণ মানুষের মধ্যেই নয়, বলিউড তারকাদের মধ্যেও কপিলের জনপ্রিয়তা কয়েক গুণ বেড়ে গিয়েছে।

নিজের দুর্দান্ত কমিক টাইমিং এবং দারুণ জোকসের জন্য দর্শকদের মধ্যে বেশ জনপ্রিয় কপিল। শুধুমাত্র ভারতেই নয়, দেশের বাইরেও রয়েছে এই কমেডিয়ানের অসংখ্য অনুরাগী। এমনকি তাঁর শোয়ের টিআরপিও আকাশছোঁয়া। ‘দ্য কপিল শর্মা শো’ (The Kapil Sharma Show) এতটাই জনপ্রিয় যে, বলিউডের প্রায় প্রত্যেক তারকা নিজেদের ছবি রিলিজের আগে কপিলের শোয়ে এসে প্রচার করে যান।

The Kapil Sharma Show

এই মুহূর্তে কপিলকে ‘কমেডি কিং’ নামে ডেকে থাকেন তাঁর অনুরাগীরা। তবে আপনি কি জানেন, অনেক কষ্ট করেই আজ এই সাফল্য পেয়েছেন কপিল। হাসির দুনিয়ার সম্রাট হওয়ার এই লড়াই কিন্তু একেবারেই সহজ ছিল না।

একবার এক রিয়্যালিটি শোয়ে গিয়ে কপিল নিজের কেরিয়ারের ওঠাপড়া নিয়ে কথা বলেছিলেন। যা শুনে একেবারে হতবাক হয়ে গিয়েছিলেন তাঁর অনুরাগীরা। সদা হাস্যময় কপিল যে নিজের জীবনে এত কষ্টের সম্মুখীন হয়েছেন, তা জানার পর বিশ্বাস করতে পারছিলেন না তাঁরা।

Kapil Sharma

কপিল বলেছিলেন, তাঁর পিতা পেশায় হেড কনস্টেবল ছিলেন। কিন্তু একদিন যখন তাঁরা জানতে পারেন যে তাঁর পিতা ক্যান্সার আক্রান্ত হয়েছেন তখন তাঁদের মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ে। সেই সময় শর্মা পরিবার প্রচণ্ড কষ্টের সম্মুখীন হয়েছিল। পিতার মৃত্যুর পর সংসারের পুরো দায়িত্ব এসে পড়েছিল কপিলের ওপর।

Kapil Sharma sad

এরপরই কমেডিয়ান হওয়ার লক্ষ্যে মুম্বই পা রাখেন কপিল। অংশগ্রহণ করেন ‘দ্য গ্রেট ইন্ডিয়ান লাফটার চ্যালেঞ্জ’ (The Great Indian Laughter Challenge) শো’য়ে। নিজের পরিশ্রমের মাধ্যমে সেই শোয়ের বিজয়ীর খেতাব জিতেছিলেন কপিল। পুরস্কার হিসেবে পেয়েছিলেন ১০ লাখ টাকা। এরপরই বদলে যায় কপিলের ভাগ্য। কমেডিয়ান জানিয়েছিলেন, জীবনের প্রথম পুরস্কার দিয়ে বোনের বিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। এরপর থেকে আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি কপিলকে। পেতে থাকেন একের পর এক সাফল্য। আদায় করে নেন ‘কমেডি কিং’এর শিরোপা।

Related Articles

Back to top button