গসিপবিনোদন

শত্রুতা পৌঁছেছিল চরম পর্যায়ে! দীর্ঘদিন মুখ দেখাদেখি বন্ধ ছিল আমির – সলমনের

বলিউডের জগৎ বাইরে থেকে যতটা রঙিন মনে হয়, তার ভিতরে ততটাই অন্ধকার লুকিয়ে থাকে। বলিউডের অভিনেতাদের মধ্যে বন্ধুত্ব যেমন আছে তেমনই আছে শত্রুতাও। বলিউডে এমন অনেক উদাহরণ পাবেন যে দুই বন্ধু এক সময় ভালো বন্ধু ছিলেন। তারপর তাদের মধ্যে এমন শত্রুতা এমন পর্যায়ে পৌঁছায় যে ছিল যে তারা একে অপরকে সহ্য কর‍তে পারেননা। বলিউডের দাবাং সালমান খান ও আমির খানের ক্ষেত্রেও এমনই কিছু ঘটেছিল

আজ জানাব দুই বলিউড সুপারস্টারের সম্পর্কে যারা বেস্ট ফ্রেন্ড ছিল এবং তারপর তাদের মধ্যে শত্রুতা হয় এবং কিছু দিন পর তারা আবার বেস্ট ফ্রেন্ড হয়ে যায়। আমরা বলিউড সুপারস্টার সালমান খান এবং আমির খানের কথা বলছি, দুজনেই প্রায় একই সময়ে তাদের চলচ্চিত্র ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন এবং সাফল্যও পেয়েছিলেন।

শুরুতে সালমান খান এবং আমির খান খুব ভাল বন্ধু ছিলেন। কিন্তু হঠাৎ করেই এই দুজনের মধ্যে এমন কিছু ঘটে যে তাদের বন্ধুত্বের মধ্যে তিক্ততা দেখা দেয় এবং দুজনেই একে অপরকে অপছন্দ করতে শুরু করেন, যদিও তার কিছুদিন পর ফের তাদের বন্ধুত্ব হয়।

সালমান খান Salman Khan আমির খান Amir Khan

শোনা যায়, আন্দাজ আপনা আপনা ছবির শুটিং চলাকালীন কোনো একটি বিষয় নিয়ে দুজনের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। করণ জোহরের শো-তে আমির খান এ নিয়ে অনেক কিছু প্রকাশ করেছেন। আমির জানান, ছবির শুটিং চলাকালীন তিনি সালমানের আচরণকে বেশ আনপ্রফেশনাল মনে করেন।

আমির বলেন, এর পর আমার মনে হয়েছে সালমানের থেকে আমার দূরত্ব বজায় রাখা উচিত। যদিও আপনাদের জানিয়ে রাখি যে শুটিং চলাকালীন তাদের দুজনের কেমিস্ট্রি ভালো না হলেও ছবিটিতে দুজনের কেমিস্ট্রি মানুষ পছন্দ করেছে। ছবিটিও বেশ সুপারহিট হয়েছিল।

Amir Khan Salman Khan sitting together

এতক্ষণে জানেন কিভাবে আমির ও সালমানের বন্ধুত্বের মধ্যে ফাটল ধরেছে।কিন্তু এই দুজনের আবার বন্ধুত্বের গল্পটা আরও মজার। আমির বলেন, এই সব ঘটনার পর সালমান আবার আমার জীবনে এলেন, যখন আমি খুব একা বোধ করছিলাম। আমির বলেন, সেই দিনগুলোতে আমি আর রীনার ডিভোর্স হতে চলেছে। তারপর হঠাৎ দেখা হল। এরপর আমরা বসে মদ পান করি এবং এখান থেকে আমাদের বন্ধুত্ব নতুন করে শুরু হয় এবং আজ পর্যন্ত এই বন্ধুত্ব রয়ে গেছে।

Related Articles

Back to top button