বিনোদন

পোশাক বদলানোর সময় মদ্যপ অবস্থায় ঘরে ঢুকে পড়েছিলেন শ্বশুর, অভিযোগ হানি সিং-য়ের স্ত্রীয়ের

র‍্যাপ স্টার হানি সিং-এর (honey singh) গান মানেই তা যে সুপারহিট হবেই তা আর বলার অপেক্ষা রাখেনা। পুজোর প্রতিটা মন্ডপ থেকে ভাসান হানি সিং-য়ের গান ছাড়া যেন জমেই না। কোনোরকম গড ফাদার ছাড়াই নিজের প্রতিভার জোরে বলিউডে নিজের পরিচয় তৈরি করেছিলেন গায়ক। তিনি একাধারে র‍্যাপার, পপগায়ক, সুরকার, গীতিকার সবই। ইউটিউব থেকে কেরিয়ার শুরু হলেও খুব অল্পসময়ের মধ্যেই তিনি বলিউডের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক প্রাপ্ত গায়কদের একজন হয়ে ওঠেন। অমিতাভ, শাহরুখ, সলমনের মতন প্রথম সারির তারকাদের সাথেও কাজ করেছেন তিনি। তবে বর্তমানে তার স্ত্রীয়ের আনা অভিযোগের ভিত্তিতে বেশ বিপাকে পড়েন র‍্যাপার গায়ক।

দিন কয়েক আগেই তার স্ত্রী শালিনী তলওয়ার দিল্লির তিস হাজারি আদালতে হানি সিংয়ের বিরুদ্ধে গার্হস্থ্য হিংসা এবং যৌন হেনস্থার অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেছেন (Shalini Talwar)। তার অভিযোগ একাধিক মহিলার সঙ্গে যৌন সম্পর্ক রয়েছে হানির।

মামলার জেরে ইতিমধ্যেই নোটিস পাঠানো হয়েছে হানি সিংয়ের কাছে। আগামী ২৮ শে আগস্টের মধ্যে জবাব চাওয়া হয়েছে। নোটিশে সম্পত্তির মালিকানা নিয়েও কিছু নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। চিফ মেট্রোপলিট্যান ম্যাজিস্ট্রেট তানিয়া সিংয়ের এজলাসে মামলাটি বিচারাধীন। ২০১৩ সালে ২৩শে জানুয়ারি সানি ভালোবেসে বিয়ে করেন শালিনী তলয়ারকে।

১২০ পাতার লম্বা অভিযোগ পত্রে হানি বাদেও গায়কের পরিবারের বিরুদ্ধে একাধিকবার আঙুল তোলেন শালিনী। শালিনী জানান, ২০১১ সালে হানিমুনে তারা মরিশাসে গিয়েছিলেন। সেখান থেকেই আচমকা হানি সিংয়ের আচরণে পরিবর্তন লক্ষ্য করতে শুরু করেন তিনি। বিষয়টিকে জানতে চাইলে নাকি হানি তাকে বিছানায় ধাক্কা মেরে ফেলে দেন।

হানি সিং নাকি সেসময় জানিয়েছিলেন তিনি শালিনীকে বাধ্য হয়ে বিয়ে করেছেন। এছাড়াও তার অভিযোগ। হানি ছাড়াও তার মা, বোন, বাবা শালিনীর উপর অত্যাচার চালাতেন এমনটাই দাবী হানি পত্নীর। তিনি জানান, একদিন পোশাক বদলানোর সময় হানির বাবা মদ্যপ অবস্থায় ঘরে ঢুকে পড়েছিলেন। শালিনী বারংবার তাকে বেরিয়ে যেতে বললেও শোনেননি তিনি, এবং তাকে যৌন হেনস্থাও করেছেন।

Related Articles

Back to top button