খবরবিনোদন

উরফিকে দেখে শেখা উচিত মেয়েদের, নেশা কাটিয়ে রিহ্যাব থেকে বেরিয়েই বেফাঁস হানি সিং

সোশ্যাল মিডিয়াতে হট টপিক বলতে গেলে উরফি জাভেদ (Urfi Javed) নামটা আসবেই। প্রতিদিনই নিত্য নতুন পোশাকে সুপার ভাইরাল হয়ে পড়ছেন তিনি। অদ্ভুত তো বটেই অশ্লীল পোশাক থেকে আজব সমস্ত উপকরণ দিয়ে ড্রেস বানিয়ে রাস্তায় বেরোনোতে উরফিকে টেক্কা দেওয়া এককথায় অসম্ভব। এর জেরে উত্তম মধ্যম ট্রোলও হন তিনি। তবে এবার উরফিকে ট্রোল না করে বরং তারই প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেন র‍্যাপার হানি সিং (Honey Singh)।

ভারতীয় নারীদের শিক্ষা নেওয়া উচিত উরফি জাভেদের থেকে। অর্থাৎ উরফিকে অনুপ্রেরণা করার কথা বলছেন গায়ক হানি সিং। হ্যাঁ ঠিকই দেখছেন, সম্প্রতি নিজের নতুন গানের অ্যালবাম রিলিজের আগে এমনটাই বললেন গায়ক হানি সিং। আসলে মিউজিক অ্যালবামের রিলিজের আগে এক সাক্ষাৎকারে হাজির ছিলেন তিনি। সেখানেই উরফি প্রসঙ্গ উঠতে এমন মন্তব্য করেন যিনি।

Honey SIngh on Urfi Javed

হানি সিংয়ের মতে, ‘ও খুবই সাহসী আর নির্ভিক। নিজের ইচ্ছামত জীবনটাকে বাঁচতে ও উপভোগ করতে চায়। আমার মত, দেশের সমস্ত মেয়েদেরই উরফিকে দেখে শেখা উচিত। নিজের মন যেটা চাইবে সেটাই করুন। কাউকে ভয় না পেয়ে, কোনো দ্বিধাবোধ না রেখে করুন। আপনি যে ধর্মের, যে জাতের মানুষই হন না কেন, পরিবারের কথা ভেবে নয় নিজের মনের যেটা ইচ্ছা সেটা করুন’।

গায়কের এই মন্তব্য নিয়ে বর্তমানে শুরু হয়েছে চর্চা। যেখানে নেটিজেনদের একটা বড় অংশ উরফির নোংরামি  পোশাকের জন্য তাকে জেলে পাঠাতে চান। সেখানে শিল্পী হয়ে এমন মন্তব্য করায় তাকেও কিছুটা সমালোচনার মুখে পড়তে হচ্ছে। তাছাড়া একসময় চরম সাফল্য পেলেও মদ আর ড্রাগের নেশায় ডুবে যান তিনি। শেষে নেশামুক্ত হয়ে আবারও কাজের জগতে ফিরেছেন তিনি।

Honey Singh

প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগে হানি সিং নিজেও সংবাদ মাধ্যমের চর্চায় উঠে এসেছিলেন। নেপথ্যে ছিল ১১ বছরের বিয়ে ভেঙে যাওয়া। তাঁর স্ত্রী অভিযোগ করে স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকে তাঁর ওপর অত্যাচার করেছে। গার্হস্থ‍্য হিংসার অভিযোগে স্ত্রী শালিনী তলোয়ারের সাথে বিচ্ছেদ হয় হানি সিংয়ের।

সেপ্টেম্বরে বিচ্ছেদ হলেও ইতিমধ্যেই নতুন করে প্রেমে পড়েছেন তিনি। সূত্রমতে বর্তমানে অভিনেত্রী টিনা ঠাডানির সাথে সম্পর্কে রয়েছেন তিনি। পাশাপাশি নতুন অ্যালবাম ‘হানি ৩.০’ ও রিলিজ হয়েছে। এখন আগামী দিনে আবারও সুপারহিট হন কি না সেটাই দেখার অপেক্ষা।

Related Articles

Back to top button