খবরবিনোদন

“বলিউডে সবাই দুধে ধোয়া নয়” অবশেষে মাদক চক্র, নেপোটিজম নিয়ে মুখ খুললেন ড্রিম গার্ল হেমা মালিনী

সুশান্ত মৃত্যুর পর বলিউডের যেন এক কালো অধ্যায় চলছে। প্রথমে স্বজনপোষণ নিয়ে সরব ছিল গোটা দেশ, তারপর বলিউডে মাদকচক্র সামনে আসার  পর থেকে বলিউডের ওপর চলছে ক্রমাগত আক্রমন। তাবড় তাবড় সেলেব্রিটিকে জেরা করা হচ্ছে, কিছু জনকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে চলছে জোর জল্পনা কল্পনা। শেষে সুশান্তের ফরেনসিক রিপোর্টে আত্মহত্যার তথ্য সামনে আসতেই, সংবাদ মাধ্যম গুলির আক্রমনের বিরুদ্ধে পাল্টা জবাব দিতে তৈরী বলিউড।

ইতিমধ্যেই বলিউডের ৩৪টি প্রযোজনা সংস্থা একত্রিত ভাবে সংবাদ মাধ্যমগুলোর ওপর দায়িত্বজ্ঞান হীনতা,অবমাননাকর ও মানহানিকর মন্তব্যের জন্য  কোর্টের দারস্ত হয়েছে। এই প্রযোজনা সংস্তা গুলির মধ্যে সালমান খান ফিল্মস, ধৰ্ম প্রোডাকশন, যশ রাজ্ ফিল্মস, শাহরুখ খানের রেড চিলিস এন্টারটেইনমেন্ট এর মত প্রযোজনা সংসস্থা আছে। মামলাতে রিপাবলিক টিভি ও টাইমস নাও সংবাদ চ্যানেল ও অর্ণব গোস্বামী, রাহুল শিবশঙ্কর, নাভিকা কুমার ইত্যাদি সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে হয়েছে। এতে খানিকটা হলেও তীর বিদ্ধ হবার থেকে বিরতি পেয়েছি বলিউড ইন্ডাস্ট্রি।

এবার দীর্ঘ দিন পরে বলিউডের নেপোটিজম, মাদককান্ড নিয়ে মুখ খুললেন বলিউডের ড্রিম গার্ল হেমা মালিনী। একসংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, “আমি বলছি না যে বলিউডে সবাই দুধ কে ধুলা। তবে সকলকে এই ভাবে মাদকাসক্ত ও বাজে বলে চিহ্নিত করা সত্যি অসনীয়! আমি দীর্ঘ ৪০ বছর বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে রয়েছি, কারোর সাথে কখনোই দুর্ব্যবহার করিনি। এমনকি আমার সাথেও কেউ কোনোদিন দুর্ব্যবহার করেনি।” অর্থাৎ হেমা মালিনীর মতে, বলিউডে সবাই যে একেবারে ভদ্র তা নয় তবে তার জন্য সমস্ত ইন্ডাস্ট্রিকে একই মাদকাসক্ত ও দুর্ব্যবহারের তকমা দেওয়া হচ্ছিল। যেটা তাদের কাছে অসহনীয়।

Related Articles

Back to top button