রেসিপি

বাচ্চা থেকে বড় একবার খেলেই চাইবে সবাই, রইল ডিম আর আটা দিয়ে হেলদি টেস্টি জলখাবার তৈরির রেসিপি

সকালে ঘুম থেকে উঠে মা কাকিমাদের কাজের শেষ নেই। বাড়ির অন্যান্য কাজের পাশাপাশই বাচ্চা ও বড়দের জন্য জলখাবার থেকে টিফিনের ব্যবস্থা করতে হয়। এদিকে বড়রা একজিনিস খেলেও বাচ্চারা একই জিনিস প্রতিদিন খেতে চায় না। সকাল সকাল তাড়াহুড়োয় নতুনত্ব রান্না কি করা যায় এই নিয়ে চিন্তায় পড়েন অনেকেই! তবে চিন্তা নেই, আজ আপনাদের জন্য ঝটপট তৈরী হবে এমনই একটা সহজ কিন্তু ইউনিক ডিম আর আটা দিয়ে হেলদি টেস্টি জলখাবার তৈরির রেসিপি (Healthy Tasty Breakfast with Egg and Floor Recipe) নিয়ে হাজির হয়েছি।

Healthy Tasty Egg Floor Breakfast Recipe

ডিম আর আটা দিয়ে হেলদি টেস্টি জলখাবার তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণঃ

১. আটা
২. ডিম
৩. ধনেপাতা কুচি
৪. ইস্ট
৫. চিনি
৬. গুঁড়ো দুধ
৭. পরিমাণ মত নুন
৮. রান্নার জন্য তেল

ডিম আর আটা দিয়ে হেলদি টেস্টি জলখাবার তৈরির পদ্ধতিঃ

➥ সহজ এই জলখাবার তৈরির জন্য সবার প্রথমে একটা পাত্রে ২ কাপ মত আটা নিয়ে নিতে হবে। তাতে পরিমাণ মত নুন, ১ চামচ ইস্ট, ১ চামচ চিনি আর ২ চামচ গুঁড়ো দুধ দিয়ে শুকনো অবস্থায় ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে।

Healthy Tasty Egg Floor Breakfast Recipe

➥ ভালো করে মিশিয়ে নেওয়ার পর হালকা গরম হল দিয়ে আটা মেখে একটা ডো তৈরী করে নিতে হবে। আটা মাখা হয়ে গেলে ঢাকা দিয়ে ১ ঘন্টা রেখে দিতে হবে। এতে ইস্ট থাকায় ১ ঘন্টায় সবটা ফ্লাফি হয়ে যাবে।

Healthy Tasty Egg Floor Breakfast Recipe

➥ ১ ঘন্টা পর এটা মাখাটাকে নিয়ে আটা গুঁড়ো ছড়িয়ে তারপর রেখে বেলে নিতে হবে। আর তার থেকে গোল গোল করে ছোট ছোট টুকরো কেটে নিতে হবে।

➥ এবার গ্যাসে ফ্রাইং প্যান বসিয়ে তাতে এগুলো দিয়ে ঢাকা দিয়ে উল্টে পাল্টে কিছুক্ষণ করে দুদিক সেঁকে নিতে হবে। তাহলেই দেখা যাবে বানের মত তৈরী হয়ে গেছে। তখন এগুলোকে আলাদা করে নিতে হবে।

Healthy Tasty Egg Floor Breakfast Recipe

➥ এদিকে একটা পাত্রে ডিম ফাটিয়ে নিতে হবে, সাথে পরিমাণ মত নুন আর সামান্য ধনেপাতা কুচি দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে।

Healthy Tasty Egg Floor Breakfast Recipe

➥ কড়ায় ১ চামচ তেল দিয়ে গরম করে নিতে হবে। তারপর বানগুলোকে ডিমের গোলাতে ভালো মত ডুবিয়ে নিয়ে কড়ায় দিয়ে দিতে হবে। এভাবেই এপিঠ ওপিঠ করে কয়েক মিনিট ভেজে নিলেই তৈরী হয়ে গেল দুর্দান্ত স্বাদের জলখাবার যেটা সকালের নাস্তা তো বটেই বাচ্চাদের টিফিনেও দেওয়া যেতে পারে।

Related Articles

Back to top button