বিপদে ‘খড়কুটো’ পরিবার! ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা গুনগুনের


অন্যান্য সব ধারাবাহিককে টেক্কা দিয়ে এখন টিআরপি (TRP) শীর্ষে রয়েছে জনপ্রিয় সিরিয়াল খড়কুটো (Khorkuto)। ৭.৩০ টা বাজলেই প্রতিটা বাড়িতেই একই সঙ্গে শুরু হয়ে যায় এই সিরিয়াল দেখার ধুম। তার একটাই কারণ, এই ধারাবাহিকে কাহিনির নতুনত্ব, একান্নবর্তী পরিবারে মিলেমিশে থাকার মজা আর, সৌগুনের মিষ্টি প্রেম।

কিন্তু এবার এই খড়কুটো পরিবারেই ঘনাচ্ছে চিন্তার মেঘ। আত্মহত্যার চেষ্টা করে বড়সড় বিপদ ডেকে আনলো গুনগুন৷ সম্প্রতি একটি প্রোমোতে দেখা গিল, অচৈতন্য অবস্থায় পড়ে রয়েছে গুনগুন। জ্যাঠাইয়ের ঘুমের ওষুধের শিশি ফাঁকা, আর গুনগুনের হাত থেকেই মিলল সেই শিশি। ইতিমধ্যেই খড়কুটোর হাসিখুশি পরিবারে নেমে এসেছে মন খারাপ।

দিন কয়েক আগেই থেকেই ভালো কাটছে না এই পরিবারের সময়। ভেস্তে গিয়েছে পুটু পিসির বিয়ে। তার কারণও ধারাবাহিকের অপর একটি চরিত্র দেবলীনার আত্মহত্যার চেষ্টা। কিন্তু দেবলীনার আত্মহত্যার চেষ্টা তো তাও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত তা বুঝতে অসুবিধা হয়নি কারোরই, কিন্তু গুনগুন কেন এই পথ বেছে নিল তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে।

আসলে গুনগুন জানতে পারে নিজের মেয়েকে ত‍্যাজ‍্যকন‍্যা করেছে জ‍্যাঠাই। কিন্তু পুটুপিসির নিষেধ না শুনেই সে কথা সে সরাসরি জিজ্ঞাসা করে জ‍্যাঠাইকে। আর এর জেরেই জ্যাঠাই নিজের মেজাহ হারিয়ে গুনগুনকে ধমক দেন, তাতেই গুনগুনের মনে হয়েছে সে বুঝি এখনও এই পরিবারের কেউ হয়ে উঠতে পারেনি।

 

তবে পজিটিভিটিই ছিল এই ধারাবাহিকের প্রধান আকর্ষণ। কিন্তু গত কয়েকদিন ধরে লাগাতার ধারাবাহিকে চলছে এই মন খারাপের পর্ব, আর তা ভালো ভাবে নিতে পারছেন না দর্শকরা। অন্যদিকে একই ধারাবাহিকে পরপর দুইবার আত্মহত্যা দেখানোর কারণে ইতিমধ্যেই বেশ সমালোচিত হয়েছে খড়কুটো।


Like it? Share with your friends!

610
20 shares, 610 points