বিনোদনসিরিয়াল

বিয়ে করবে না বলে কান্না জুড়ে দিল গুনগুন, সৌজন্যও তৈরি হচ্ছে বৌয়ের বিয়েতে গান গাওয়ার জন্য

বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক গুলোর মধ্যে অন্যতম স্টার জলসার (Star Jalsha) শো’জ টপার ‘খড়কুটো’ (Khorkuto) । টেলিভিশনের পর্দায় অন্যতম জনপ্রিয় এই সিরিয়ালের ‘কমিক’ পরিবার।সারাক্ষণ হাসি মজায় গমগম করে গোটা বাড়ি। কিন্তু এখন পাল্টে গিয়েছে গল্পের মোড়। চ্যানেলের নতুন প্রমোতে দেখা যাচ্ছে গল্পের নায়িকা গুনগুনের (Gungun) নতুন বিয়ের আয়োজন করেছেন তাঁর বাবা কৌশিক। কিন্তু সিরিয়ালের নায়ক সৌজন্য (Soujanya) থাকতে সেই বিয়ের পিঁড়িতে শেষ মেষ বর বেশে কে বসে সেটাই দেখার।

নতুন প্রমোতে দেখা যাচ্ছে আবার নতুন করে বিয়ের কথা শুনে বাবার কাছে কান্নায় ভেঙে পড়েছে গুনগুন। বাচ্চাদের মতো কাঁদতে কাঁদতেই সে বাবাকে জানা এসব তার ভালো লাগছে না ‘বুকের মধ্যে কষ্ট হচ্ছে’। কিন্তু গুনগুনের বাবা তাকে উল্টে ভালো করে কান্নাকাটি করে মন হাল্কা পরামর্শ দিয়ে বলেন ‘তুমি কাঁদো মা, ভালো করে কাঁদো, কেঁদে কেঁদে মন হাল্কা করো।’ এই বলে মেয়েকে ঘরে কাঁদতে বসিয়ে দিয়ে বেরিয়ে যান কৌশিকবাবু।

তার আগেই অবশ্য নিজের ভুল বুঝতে পারে গুনগুন। বিয়ে না করতে চেয়েই গুনগুন তাঁর বাবার কাছে নিজের সমস্ত ভুলের কথা জানায়। বলে বাবিনে কোনো দোষ নেই ও কোনোদিন কষ্ট দেয় নি ওকে। অভিমান করে বিদেশ চলে যাবে বলেছিল। কিন্তু গুনগুনের বাবা জানিয়ে দেয় এখন আর কিছু করা যাবে না, এখন তাকে নতুন বরের সাথেই বিয়ে করতে হবে।

 

অন্যদিকে সৌজন্য কেও তার বাড়ির লোকজন গুনগুনের বিয়েতে যাওয়ার জন্য বোঝাতে থাকে। পুটু পিসি সহ অন্যান্যরা এসে সকলে মিলে তাকে বোঝাতে থাকে পাঞ্জাবি পরে একেবারে বরের মতো সেজে রেডি হতে হবে তাকে। আর ওই সাজেই গুনগুনের বিয়েতে গিয়ে তাকে দেখিয়ে দিতে হবে গুনগুনের বিয়েতে তার কিছু যায় আসে না।

তাই এখন যে দিকে সিরিয়ালের ট্রাক এগোচ্ছে তাতে মনে করা হচ্ছে মহা বিবাহ থেকেই জটিল খুলতে চলেছে গুনগুন সৌজন্য সম্পর্কের। কারণ তারা একে অপরকে যে ভালোবেসে ফেলেছে একথা তাদের আচরণ থেকে একপ্রকার স্পষ্ট। এখন শুধু মুখ ফুটে বলার অপেক্ষা। আর এই মহা বিবাহ পর্ব তেই সম্ভবত এমন কিছু হতে চলেছে যা চিরকালের জন্য তাদেরকে একে অপরের কাছে এনে দেবে বলে মনে করা হচ্ছে।

 

Related Articles

Back to top button