বিনোদনভিডিওসিরিয়াল

পুলিশের কাছে আবদার ড্যাডিকেও চাই, ক্রেজিকেও চাই, উভয় সংকটে গুনগুন!

বাঙালির বিনোদনের অন্যতম অঙ্গ হল মেগা সিরিয়াল। প্রতিদিন টিভির পর্দায় তারকাদের দেখতে কখন যেন দর্শকদের নিজেদের পরিবারের একজন ভেবে নেন দর্শকরা। আর তাই প্রিয় তারকাদের দেখা না পেলেই মন খারাপ হয়ে যায় দর্শকদের। সিরিয়াল প্রেমীদের কাছে বিপুল জনপ্রিয় স্টার জলসার এমনই একটি সিরিয়াল হল ‘খড়কুটো'(Khorkuto)। দর্শকদের কাছে এই সিরিয়ালের জনপ্রিয়তা নিয়ে নতুন করে কিছু বলার নেই।

হাসি-মজায় ভরপুর মুখার্জি পরিবারের যৌথ পারিবারিক সম্পর্কের প্রেক্ষাপটে গুনগুন-সৌজন্যের (Gungun-Soujanyo) খুনসুটি নিয়ে তৈরি হয়েছে এই সিরিয়াল। হাসি মজায় সকলে মিলে মাতিয়ে রাখে গোটা বাড়ি। আর বাড়ির নতুন বৌ গুনগুন হল বাড়ির প্রাণ। তাকে ছাড়া গোটা বাড়িটাই ফাঁকা লাগে। ভুল বোঝাবুঝির কারণে বেশ কিছুদিন চোখের সামনে বৌকে দেখতে না পেয়ে একটু বেশিই কষ্টে ছিলেন সৌজন্য ওরফে গুনগুনের ক্রেজি।

বেশ অনেকদিন হল গুনগুনের থেকে দূরে দূরে থাকতে হচ্ছে সৌজন্যকে। তাই শ্বশুর কে ফাঁকি দিয়ে মাঝে মধ্যেই নিজের বৌয়ের সাথে লুকিয়ে রোম্যান্স করতে দেখা যাচ্ছে সৌজন্যকে। যা নিয়ে বাড়ির সবাই মিলে খেপাচ্ছে বাবিনকে। এসবের মধ্যেই সিরিয়ালের প্লট অনুযায়ী দেখা যাচ্ছে কলেজ থেকেই পড়াশোনা সংক্রান্ত বিষয়ে এক্সকারশনের জন্য কোথাও একটা ঘুরতে গিয়েছে সৌজন্য-গুনগুন।

যদিও শান্তি নেই সেখানেও । গুনগুনের পিছু পিছু গিয়ে হাজির হয়েছে তাঁর ড্যাডি অর্থাৎ কৌশিকবাবু।শুধু তাই নয় মাঝে মধ্যেই ঢুকে পড়ছেন গুনগুনের ঘরে। আর তখনই শ্বশুরের হাত থেকে বাঁচতে কখনও পর্দার আড়ালে আবার কখনও বাথরুমে ঢুকে লুকাতে হচ্ছে সৌজন্যকে। আর এই গোটা বিষয়টা নিয়েই ভীষণ বিরক্ত সৌজন্য।

ইতিমধ্যেই দেখা গেছে সৌজন্যর শ্বশুরের মতোই তাঁদের পিছু নিয়ে ওই একই হোটেলে উঠেছে পটকা সহ সৌজন্যর বাড়ির সদস্যরাও। আর পরে সেখানে পুলিশ নিয়ে হাজির হয়েছেন কৌশিক বাবু। কিন্তু গুনগুন সকলের সামনেই পুলিশকে সাফ জানিয়ে দেয় শুধু ড্যাডি নয় ড্যাডির পাশাপাশি তাঁর ক্রেজিকেও চাই। কিন্তু পুলিশ বুঝতে পারে না কে ক্রেজি। তখনই মিষ্টি বৌদি পুলিশকে জানায় ‘ও ওর বরকে আদর করে একটু ক্রেজি বলে ডাকে।’ ব্যাস এই কথা শুনেই হাসির রোল উঠেছে নেট পাড়ায়।

 

Related Articles

Back to top button