গসিপবিনোদনসিনেমা

বিয়ের পরে বৌকে নয়, মাকে ভয় পান গোবিন্দা, মায়ের অনুমতি ছাড়া ছুঁয়েও দেখেন না মদ!

নব্বইয়ের দশকের হিন্দি সিনেমা জগতের জনপ্রিয় অভিনেতাদের মধ্যে অন্যতম হলেন গোবিন্দা। তিনিই হলেন বলিউডের হিরো নাম্বার ওয়ান। তবে শুধু অভিনয় নয় সেইসাথে তার কমেডি সেন্স এবং নাচের দক্ষতা, এবং চোখমুখের এক্সপ্রেশন নিমেষে মন জয় করে নেয় দর্শকদের। তাই এখন সিনেমায় অভিনয় না করলেও তার জনপ্রিয়তায় ভাঁটা পড়েনি একফোঁটা।

জানা যায় এই বলিউডের সুপারস্টার অভিনেতা গোবিন্দার ছোট থেকেই অভিনয়ে আসার শখ ছিল। কারণ তার বাড়িতেও বরাবরই ছিল ফিল্মি পরিবেশ। গোবিন্দার বাবা অরুণ আহুজাও ছিলেন একজন অভিনেতা । তিনি প্রায় ৩০ থেকে ৪০টি ছবিতে কাজ করেছেন। অন্যদিকে গোবিন্দার মা নির্মলা একাধারে অভিনেত্রী এবং একজন গায়িকা ছিলেন।

তবে গোবিন্দা তার মায়ের অত্যন্ত কাছের। মাকে খুব ভালোবাসেন গোবিন্দা। তবে মায়ের এই ভালোবাসাই তাকে বিগড়ে দেয়। কারণ জানলে হয়তো অবাক হবেন অনেকেই। জানা যায় গোবিন্দার মা নিজেই তাকে মদ খাওয়ার অনুমতি দিয়েছিলেন। একথা একবার নিজের মুখেই জানিয়েছিলেন গোবিন্দা।

একবার অভিনেত্রী সিমি গারেওয়ালের চ্যাট শোতে গিয়ে গোবিন্দা নিজের এবং মায়ের সাথে জড়িত সেই সিক্রেট ফাঁস করেছিলেন। জানা যায় এমন একটা সময় ছিল যখন গোবিন্দা তাজ হোটেলে চাকরি জন্য গিয়ে খালি হাতে ফিরে এসেছিলেন। কিন্তু ভাগ্যের এমনই খেল এই ঘটনার বেশ কয়েক বছর পর স্ত্রী সুনীতার জন্মদিন সেলিব্রেট করতে সেই তাজ হোটেলেই ডিনার করতে গিয়েছিলেন গোবিন্দা।

তাই সেসময় পুরনো কথা মনে পড়ে যাওয়ায় আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন অভিনেতা। সেসময় তার স্ত্রী সুনীতা তাকে নতুন কিছু করতে বলেন। তখন গোবিন্দা ঠিক করেন সেই দিনটি সেলিব্রেট করার জন্য তারা শ্যাম্পেন পান করবেন। কিন্তু মজার বিষয় এই যে শ্যাম্পেনের বোতল খোলার আগে গোবিন্দা নিজের মায়ের কাছে ফোন করে জানতে চান মদ পান করবেন কিনা। উত্তরে নাকি গোবিন্দার মা বলেছিলেন ‘আজও জানতে চাইছো! এই মুহুর্তটা উপভোগ করতে হবে তো।’

Related Articles

Back to top button