লাইফ স্টাইল

পুজোয় নিজেকে সুন্দরী করতে চান কিন্তু মুখে ব্রণ? রইল ৩ দিনে ব্রণ দূর করার অব্যর্থ উপায়গুলি

নিজেকে একটু বেশি সুন্দর করে তুলতে সকলেই চায়। বিশেষ করে সামনেই পুজো আর পুজোর কটা দিন নিজেকে আরও বেশি সুন্দরী করতে চান মহিলারা। নিজেকে সুন্দর করতে গিয়েই শুরু হয় রূপচর্চা (Beauty Care)। অনেকেই অনেক টাকা খরচ করেন দামি দামি কসমেটিকস কেনার জন্য। কিন্তুই এই কসমেটিকসের মধ্যে থাকে কেমিক্যাল, যা সাময়িকভাবে সুন্দর দেখায়। কিন্তু আদতে ত্বকের ক্ষতি করে। আর কেমিক্যাল ব্যবহারের ফলে বা স্বাভাবিক কারণে অনেক সময়েই মুখে ব্রণ (Pimple) দেখা দেয়। যেটা আপনার সৌন্দর্য বিগড়ে দেবার জন্য যথেষ্ট।

তবে আর নয়, আজ আপনাদের জানাবো ব্রণ দূর করার ঘরোয়া উপায়গুলি (Get rid of Pimple Problems)। খুব সহজেই বাড়িতে এই পদ্ধতিগুলো অবলম্বন করলে মুখের ব্রণ দূর করে ফেলতে পারবেন। এমনকি বলতে গেলে রাতারাতি উধাও হয়ে যাবে মুখের ব্রণ। তাহলে আর দেরি নয়। চলুন দেখে নেওয়া যাক ব্রণ দূর করার সহজ ঘরোয়া উপায়গুলি।

শশা (Cucumber) : ফল হিসাবে ব্যবহার হলেও শসার নানা গুণ রয়েছে। ত্বকের জন্য দারুন উপকারী এই শশা। এতে রয়েছে ভিটামিন এ, ডি এবং ই। এর প্রতিটিই ত্বকের জন্য দারুন উপকারী। একটি কচি শশা নিয়ে সেটাকে থেঁতো করে নিতে হবে। এরপর সেটাকে মুখে ভালো করে মেখে ২০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। এরপর ঠাণ্ডা জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন।

Green Tea

গ্রীন টি (Green Tea) : শরীরকে ফিট রাখতে বা রোগ হবার জন্য অনেকেই গ্রীন টি পান করেন। আর এই গ্রীন টি কিন্তু ব্রণর বিরুইদ্ধে দারুন কার্যকরী। প্রথমে নরমাল চায়ের মত গ্রীন টি বানিয়ে সেটাকে ঠান্ডা করে তুলো দিয়ে ব্রণ হওয়া জায়গাতে ম্যাসাজ করুন। বা চাইলে টি ব্যাগটিকেও ধরে রাখতে পারেন ব্রণের উপর। শেষে অবশ্য জল দিয়ে ভালো করে মুখ ধুয়ে নিতে হবে।

তুলসী রস (Tulsi Juice) : তুলসী পাতার গুনাগুন সম্পর্কে আলাদা করে কিছুই বলার নেই। ছোট থেকে বড় সকলেই জানে যে তুলসী পাতা শরীরের জন্য কতটা উপকারী। আর এই তুলসী পাতার রস কিন্তু মুখের ব্রণ সরিয়ে তোলার জন্যও দারুন কাজ করে। এর জন্য তুলসী পাতার রস বের করে সেটা ব্রণ হওয়া জায়গায় লাগিয়ে কিছুক্ষণ রাখুন। এরপর শুকিয়ে গেলে উষ্ণ গরম জল দিয়ে সেটা ধুয়ে ফেলুন এভাবে প্রতিদিন করলেই ৪-৫ দিনে উধাও হয়ে যাবে ব্রণ।

অ্যাসপিরিন (Aspirin) : অ্যাসপিরিনের মধ্যে স্যালিসাইলিক অ্যাসিড থাকে যেটা ব্রণকে ঝটপট শুকিয়ে দে। তাই ব্রণ হলে কয়েকটা অ্যাসপিরিন ট্যাবলেট নিয়ে গুঁড়ো করে জল মিশিয়ে পেস্ট মত তৈরী করে নিন। এরপর সেই পেস্ট ব্রণ হওয়া স্থানে লাগিয়ে ঘুমিয়ে পড়ুন। সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখবেন ব্রণ উধাও হয়ে গেছে। তবে সেনসিটিভ স্কিনের ক্ষেত্রে কিছুক্ষন পরেই ধুয়ে নিতে হবে।

লেবুর রস Leomn Juice

পাতিলেবু (Lemon) : পাতিলেবু রান্না ছাড়াও নানান কাজে ভীষণ দরকারি প্রমাণিত হয়। এমনকি ব্রণ হলে পাতিলেবুর রস কিন্তু দারুন কার্যকর। পাতিলেবুর রস আর দারুচিনি গুঁড়ো মিশিয়ে পেস্ট মত তৈরী করে সেটা রাতে  লাগিয়ে শুয়ে পড়তে পারেন। সকালে উঠে উষ্ণ গরম জল দিয়ে ধুয়ে দিলেই দেখবেন ম্যাজিকের মত উধাও ব্রণ।

Related Articles

Back to top button