বিনোদনসিরিয়াল

ভেজা শরীর ,গায়ে নেই ব্লাউজ ! সোশ্যাল মিডিয়ায় বোল্ড ছবি দিয়ে ট্রোলের মুখে গাঁটছড়ার খড়ি 

সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি দিয়ে চোর ধরা এখন নায়ক নায়িকাদের কাছে জলবা তে পরিণত হয়েছে এমনিতে সেলিব্রেটিদের অভিনয় থেকে ব্যক্তিগত জীবন সব কিছু নিয়েই ভক্তদের কৌতূহলের অন্ত নেই প্রিয় নায়ক নায়িকা সোশ্যাল-মিডিয়ায় (Social midea)-ভাইরাল হয়ে যায় ঝড়ের গতিতে ভালো লাগলে যেমন প্রশংসা জোটে তেমনই তথাকথিত নেটিজেনদের রুচিতে বাঁধলেই কমেন্ট সেকশনে উপচে পড়ে নেতিবাচক মন্তব্য, শুরু হয়ে যায় দেদার ট্রোলিং (Trolling)।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি দিয়ে হামেশাই  এই ধরনের ট্রোলিংয়ের মুখে পড়ে অনেক অভিনেতা অভিনেত্রী। তবে অনেকেই আছেন যারা মুখের ওপরে ঝামা ঘষে দেন।  আবার অনেকেই আছেন যারা কথা না বাড়িয়ে শুধু এড়িয়ে যান। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি দিয়ে এবার নেটিজেনদের কুরুচিকর মন্তব্যের মুখে পড়লেন বাংলা ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম পরিচিত অভিনেত্রী সোলাঙ্কি রায় (Solanki Roy), অর্থাৎ ষ্টার জলসার ‘গাঁটছড়া’ (Gantchora) সিরিয়ালের খড়ি (Khori)।

এমনিতে সিরিয়ালের চরিত্রের প্রয়োজনে বেশিরভাগ সময়ে শাড়ি সালোয়ার-কামিজ পরে থাকতেই দেখা যায় এই অভিনেত্রীকে।  কিন্তু বাস্তব জীবনে কিন্তু দারুণ স্টাইলিস্ট এই অভিনেত্রী। তাই মাঝেমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের পছন্দ মতো ফটোশুট কিংবা মনের মত ছবি আপলোড করে থাকেন সোলাঙ্কি। তাছাড়া সোশ্যাল মিডিয়ায় নিয়মিত যাতায়াত লেগেই থাকে অভিনেত্রীর।

সোলাঙ্কির সোশ্যাল মিডিয়া একাউন্টে ঢুঁ দিলেই প্রমান মিলবে তার। সম্প্রতি তেমনি আগেকার দিনের পিসি ঠাম্মাদেড় মতো এলো করে শাড়ি পড়ে পিঠ খোলা অবস্থায় ভেজা চুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি আপলোড করেছিলেন পর্দার খড়ি অভিনেত্রী সোলাঙ্কি।ব্যাস আর যাবে কোথায়! মুহুর্তের মধ্যে সেই ছবি ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

মুহূর্তের মধ্যে মন্তব্য,পাল্টা মন্তব্যে ভোরে যাই কমেন্ট সেকশন। অভিনেত্রীর ছবি দেখে কেউ  লিখেছেন তারা তাদের প্রিয় অভিনেত্রীকে এমন পোষাকে দেখতে চান না,আবার কারো তরফ থেকেএসেছে নানান কুরুচিকর মন্তব্য।  কিন্তু কিন্তু ভুলে গেলে চলবে না সোশ্যাল মিডিয়ায় বরাবরই একটা নিজস্ব ফ্যানবেস রয়েছে অভিনেত্রীর। এদিন তারাই কমেন্ট সেকশনে পাশে দাঁড়িয়েছেন প্রিয় অভিনেত্রীর। সোলাঙ্কির  দারুণ প্রশংসা করার পাশাপাশি তারা জানিয়েছেন একজন শিল্পী হিসেবে ছবি তোলার এইটুকুনি স্বাধীনতা অবশ্যই, থাকা উচিত।

Related Articles

Back to top button