বিনোদন

লকডাউনে অর্থকষ্ট! নিজের নগ্ন ছবি বিক্রি করেই ৭৩ লক্ষ টাকা রোজগার এই শিক্ষিকার

জীবনে বাঁচার জন্য অর্থের ভীষণ প্রয়োজন তা বলাই বাহুল্য। কিন্তু করোনা মহামারীর জেরে প্রায় সবদেশেই হেলে পড়েছে অর্থনৈতিক পরিকাঠামো। দীর্ঘদিন বন্ধ স্কুল, কলেজ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। স্বভাবতই এর ছাপ পড়েছে ছাত্র শিক্ষক উভয়েরই জীবনে। স্কুল বন্ধ থাকায় টানাটানি পড়েছে শিক্ষিকার সংসারেও। তাই অর্থ উপার্জন করতে অনেকেই অনেক কিছু করেন।

এবার এই কান্ড ঘটালেন আমেরিকার শিক্ষিকা কোর্টনি টিলিয়া (Courtney Tillia)। অর্থ জোগাতে নিজের নগ্ন ছবি বিক্রি করে মাসে ৭৩ লক্ষ টাকা উপার্জন করলেন তিনি। আমেরিকার লস অ্যাঞ্জেলসের বাসীন্দা কোর্টনি অটিস্টিক বাচ্চাদের একটি স্কুলে শিক্ষকতা করতেন, তার স্বামীও পেশায় একজন শিক্ষক।

Courtney Tillia

দুজনের শিক্ষকতার উপার্জনেই সংসার চলতো, তাদের দুটি সন্তান ও রয়েছে। কিন্তু কোর্টনির কথায় ওই রোজগারে কিছুতেই সংসার চলছিল না। তারউপর লকডাউনে স্কুল বন্ধ হওয়াত তাদের উপার্জন আরও কমে যায়। চিন্তায় ঘুম ওড়ার জোগাড় হয়েছিল দম্পতির। কীভাবে আয় বাড়ানো যায় এই চিন্তা ভাবনা শুরু করতেই শিক্ষিকার মাথায় আসে ইন্সটাগ্রাম এবং ট্যুইটারে ছবি শেয়ারের কথা।

Courtney Tillia

এরপর তিনি প্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য অ্যাডাল্ট ফটোগ্রাম পোস্ট করতে নিজের একটি অ্যাকাউন্ট খোলেন, এবং সেখানে নিজের নগ্ন ছবি পোস্ট করা শুরু করেন কোর্টনি। রাতারাতি তার ফলোয়ার্স হুহু করে বাড়তে থাকে। ফলোয়ার বাড়তেই তিনি ‘অনলিফ্যানস’ সাইটে নিজের নাম নথিভুক্ত করান। এই অ্যাডাল্ট সাবস্ক্রিপশন সাইটেই নিজের নগ্ন ছবি বিক্রি করে বর্তমানে মাসে তিনি আয় করছেন ৭৩ লক্ষ টাকা।

Courtney Tillia

একজন শিক্ষিকা হয়ে এই কাজ করার জন্য আমেরিকার মতো দেশেও তাকে কম কটাক্ষ সইতে হয়নি। কিন্তু কোর্টনি জানান তার স্বামীর পূর্ণ সমর্থন পেয়েছেন তিনি। আর উপার্জনের জন্য শরীর প্রদর্শন তার কাছে দোষের নয়। শিক্ষকতা পেশায় আর ফিরতে চাননা বলেও সাফ জানিয়েছেন কোর্টনি।

Related Articles

Back to top button