গানবিনোদন

গাঁজার নেশা করে বান্ধবী সাথে নিয়ে পর্যটনকেন্দ্রে অসভ্য আচরণ নোবেলের! ছি ছি রব গায়কের বিরুদ্ধে

নোবেল ম্যান (Noble Man) যাকে এক ডাকে দুই বাংলার লোক নোবেল বলেই চেনে। ভারতীয় বাংলা বিনোদন চ্যানেলে নোবেলের ঐতিহাসিক পারফরম্যান্স জনপ্রিয়তার এমন এক শিখরে পৌঁচ্ছেছিল যে বাংলা গানের জগতে যেন রাতারাতি আবির্ভাব হয়েছিল এক নক্ষত্রের। নোবেলের আসল নাম মইনুল আহসান নোবেল (Mainul Ahsan Noble)। গানের দিক থেকে নাম করলেও মাঝে মধ্যেই বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন বাংলাদেশী এই গায়ক।

গানের জন্য একসময় তাকে ঠিক যত মানুষ ভালোবেসেছিলেন, তার দ্বিগুণ সংখ্যক মানুষ এখন ছি ছি করছেন। সম্প্রতি সামনে এসেছে নোবেলের এমনই এক কেচ্ছা। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ বাংলাদেশের জনপ্রিয় পর্যটনকেন্দ্র বান্দরবানে এক বান্ধবীর সঙ্গে যান নোবেল, এবং সেখানে গিয়ে নেশা করে পর্যটক দের ধরে মারধরের অভিযোগ ওঠে তার বিরুদ্ধে।।

গত বুধবার জনপ্রিয় গায়ক নোবেল নিজের ফেসবুক হ্যান্ডেল থেকেই বান্ধবীর সঙ্গে জঙ্গুলে নদীর উপর একটি পাথরে বসে গাঁজা খাওয়ার বেশ কয়েকটি ছবি শেয়ার করেন৷ ক্যাপশনে লিখেছেন সে দেশের জনপ্রিয় এক গানের কলি, ‘গাঁজার নৌকা পাহাড়তলি যায়/ও মিরাবাই।’ জানা যায়, বান্দরবানের যাওয়ার আগে বাসস্ট্যান্ড থেকেই বেসামাল ছিলেন নোবেল। তার পর এক রেলওয়ে স্টেশনের পাশে গার্ডেন সিটি নামের একটি হোটেলে ওঠেন তাঁরা।

সূত্রের খবর, ওই হোটেলেই রাতের বেলা পর্যটকদের উন্মত্ত অবস্থায় মারধর করেন নোবেল। তার অবস্থা দেখে সেই রাতে ৩টে নাগাদ ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ। শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টে নাগাদ হোটেল ছেড়ে দেন নোবেল ও তাঁর সঙ্গিনী। জানা যাচ্ছে, নিজেদের স্বামী স্ত্রী পরিচয় দিয়েই ওই হোটেলে উঠেছিলেন তারা।

নোবেলের স্ত্রী সালসাবিল মাহমুদ ফেসবুকে পোস্ট করেছেন এই ঘটনার পর। নোবেলের পোস্ট করা ছবি থেকে শুরু করে হোটেলের কিছু ছবি শেয়ার করে তিনি প্রশাসনকে নোবেলের বিরুদ্ধে যথাযথ পদক্ষেপ করতে বলেছেন।

Related Articles

Back to top button