ভাইরালভিডিও

মা তো মা-ই হয়! বন্যায় কুকুর ছানার জীবন বাঁচানোর ভিডিও ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়

রোজই ইন্টারনেটের ভিড়ে ভাইরাল হচ্ছে কত শত ভিডিও।  এদের মধ্যে কিছু ভিডিও এমন হয়  যা সত্যিই মন ছুঁয়ে যায়। এবার এরকমই মন ছুঁয়ে যাবার মত একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। কথায় আছে মায়ের মত কেউ ভালোবাসতে পারে না! পৃথিবীতে মা তার সন্তানকে যতটা ভালোবাসে ততটা আর কেউ ভালোবাসতে পারেনা। এক মা সর্বদাই তার সন্তানদের আগলে রাখে। এরকমই একই উদাহরণ মিলেছে ভিডিওটিতে।

প্রাকৃতিক দুর্গজের ফলে বা বন্যার ফলে যখন মানুষ কোনো জায়গায় আটকা পরে যায়  তখন তাদের উদ্দারবাহিনী নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যায়, একথা তো আমাদের সকলেই জানি। মানুষের পাশাপাশি গবাদি পশুদের উদ্ধার করা হয় সেক্ষেত্রে। তবে পশু পাখিদের ক্ষেত্রে নিরাপদ স্থানের যাবার দায়িত্বটা তাদের  নিজেদের ওপরেই থাকে বেশি। সাথে নিজেদের সন্তানদেরকেও রক্ষা করতে হয় বিপদ আপদের থেকে। এরকমই এক দৃষ্টান্ত মূলক উদাহরণ হল  এই ভিডিওটি।

এবছর কর্ণাটকের বিস্তীর্ন এলাকা জলমগ্ন, সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে পশু সকলেই পড়েছে বিপাকে। এবার সেই বন্যাপ্রবণ এলাকা থেকে নিজের সন্তানকে বাঁচিয়ে নিরাপদ স্থানে নিয়ে যাচ্ছে এক কুকুর, এরকমই একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে ইন্টারনেটে। মা কুকুরটি জলের মধ্যে দিয়ে তার সন্তানকে নিরাপদ স্থানে নিয়ে রাখতে যাচ্ছে! ঠিক সেই সময় কোনো একব্যক্তি এই ঘটনাটি রেকর্ড করে আপলোড করে সোশ্যাল মিডিয়াতে। এর পর সংবাদ মাধ্যম এএনআই সেই ভিডিওটি পোস্ট করলে ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে পরে।

এএনআই ভিডিওটি শেয়ার করে লিখেছে,” এক মা কুকুর তার ছোট্ট সন্তানকে সরিয়ে নিরাপদ স্থানে নিয়ে যাচ্ছে। ঘটনাটি গত শনিবারের কর্ণাটকের বন্যা বিধস্ত তারাপুর গ্রামের। শেয়ার করার পর থেকে এখনো পর্যন্ত ভিডিওটি ৬৩ হাজারেরও বেশি দেখা হয়েছে। ভিডিওটির মন্তব্যে অনেকেই মা এর ভালোবাসার কথা বলেছেন। আবার অনেকে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন যিনি ভিডিওটি রেকর্ড করেছেন তার ওপর। নেটিজেনদের অনেকে বলেছেন ঘটনাটি রেকর্ড না করে মা কুকুরটিকে সাহায্য করা উচিত ছিল।

Related Articles

Back to top button