বিনোদনসিনেমা

অবিকল আমার বাবা! ‘আয় খুকু আয়’-তে ছেলে বুম্বাকে দেখে অবাক বাবা বিশ্বজিৎ 

আজ অর্থাৎ ১৯ জুন হলো আন্তর্জাতিক পিতৃ দিবস। আর আজকের এই বিশেষ দিনের  মাত্র দুদিন আগেই অর্থাৎ১৭ই জুন বড় পর্দায় মুক্তি পেয়েছে ‘টলিউডের ইন্ডাস্ট্রি’ বলে পরিচিত প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় (Prosenjit Chatterjee)এবং অভিনেত্রী দিতিপ্রিয়া রায় (Ditipriya Roy) অভিনীত বহু প্রতীক্ষিত সিনেমা ‘আয় খুকু আয়'(Ay khuku Ay)। এই সিনেমায় একজন হকারের চরিত্রে অভিনয় করেছেন প্রসেনজিৎ।

একেবারে সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারের এক বাবা ও মেয়ের গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছে এই সিনেমা। তাই এই সিনেমা জুড়ে না আছে কোনো চাকচিক্য না আছে কোনো জাঁকজমক, একেবারে সাদামাটা মধ্যবিত্ত বাঙালি পরিবারের বাস্তব চিত্রই তুলে ধরা হয়েছে এই সিনেমায়। প্রসঙ্গত এই  সিনেমার শুটিং শুরুর আগে থেকেই প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের প্রস্থেটিক মেকাপ হয়ে উঠেছে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু।

at khuku ay ditipriya prosenjit

সিনেমা মুক্তির আগেই মুম্বাই থেকে অমিতাভ বচ্চনের প্রশংসা পেয়েছেন প্রসেনজিৎ। শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন বাংলা মহারাজ স্বয়ং সৌরভ গাঙ্গুলীও। এছাড়া সিনেমা মুক্তির পরেই বাবার অভিনয়ের প্রশংসা করেছিলেন ছেলে তৃষাণজিৎও।এবার সুদূর মুম্বাই থেকেই ছেলের সিনেমার ট্রেলার দেখে প্রসংশা (Praise) করে তাঁর উদ্ধেশ্যে একটি খোলা চিঠি  লিখে ফেললেন বর্ষীয়ান অভিনেতা বিশ্বজিৎ চট্টোপাধ্যায় (Bishwajit Chatterjee )।

সেই  চিঠির আগাগোড়াই রয়েছে প্রশংসায় মোড়া সূক্ষ অনুভূতি। সিনেমার ট্রেলরেই ছেলে বুম্বার লুক দেখে প্রথমে নাকি চমকে উঠেছিলেন বাবা বিশ্বজিৎ। সিনেমাতে নির্মলের চরিত্রে প্রসেনজিতের লুক নাকি হুবহু তাঁর  বাবা অর্থাৎ প্রসেনজিতের দাদু তথা চিকিৎসক রঞ্জিত কুমার চট্টোপাধ্যায়ের মতো লাগছে। সেইসাথে অভিনেতা জানালেন প্রসেনজিৎ এবং তার বাবা রঞ্জিত কুমারের জন্মদিনও নাকি একই দিনে,অর্থাৎ ৩০সেপ্টেম্বর।

তবে সেইসাথে এদিন এই খোলা চিঠিতে বর্ষীয়ান অভিনেতা এও জানালেন এই মুহূর্তে তিনি মুম্বাইয়ে থাকায় এখনই তার পক্ষে সিনেমাটি দেখা সম্ভব হচ্ছেনা। কিন্তু ছেলেকে কথা দিয়েছেন মুম্বাইয়ের সিনেমা হলে আসলে তিনি অবশ্যই সিনেমাটি দেখে ফেলবেনা।  পাশাপাশি এদিন বাবার মুখে ঝরে ছেলে বুম্বার প্রস্থেটিক মেকাপের প্রশংসাও। এদিন এই  বর্ষীয়ান অভিনেতা বলেন আয় খুকু আয় সিনেমাটি বাংলা সিনেমার ইতিহাসে একটি নতুন দিক খুলে দিতে চলেছে।

Related Articles

Back to top button