বিনোদন

নিজের হাত কেটে রক্ত দিয়ে অন্বেষার নাম লিখল এক অনুরাগী! কান্ড দেখে ভয়ে কাঁটা অভিনেত্রী

অভিনেতা অভিনেত্রীদের ভক্ত তো থাকেই, এবং সেই ভক্তদের বিভিন্ন পাগলামীও সহ্য করতে হয় সেলেবদের। কেউ ছবি ফোনের ওয়ালপেপার করে, তো কেউ পোস্টার টাঙায় দেওয়ালে, কেউ ডিপিতে পছন্দের তারকার ছবি রাখে তো কেউবা টিশার্টে চিপকায়। এমনকি ট্যাটুর নজিরও মিলেছে। কিন্তু এসবকে ছাপিয়ে গিয়েছে জি বাংলার ধারাবাহিক ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’ এর নায়িকা অন্বেষা হাজারা ওরফে ঊর্মির এক ভক্ত।

অন্বেষার এই অনুরাগী যা করেছে শুনলে ভয়ে শিউরে উঠবে যে কেউ। টেলি অভিনেত্রী অন্বেষা হাজরার দৃষ্টিগোচর না হতে পেরে হাত কেটে রক্ত দিয়ে তার নাম লিখেছেন এক পুরুষ অনুরাগী। এমন অমানবিক কান্ড দেখে চমকে উঠেছেন অভিনেত্রী নিজেও, সেই ছবি ইন্সটাগ্রামে শেয়ারও করেছেন অন্বেষা। অনুরাগীর এমন আচরণে বেজায় অসন্তুষ্ট অভিনেত্রী নিজেও।

তবে, অনেকেই অন্বেষার এই ছবি শেয়ার করা নিয়েও তাকে কটাক্ষ করেছেন। পরবর্তীতে ইন্সটাগ্রামের তরফে সেই পোস্ট ডিলিট করা হয়েছে। সব শেষে আসল ঘটনা নিয়ে মুখ খোলেন, ঊর্মি ওরফে অন্বেষা। তিনি জানান,বুধবার রাতে অভিনেত্রীর এক অনুরাগী ছুরি দিয়ে নিজের হাত কাটেন। তার পর সাদা কাগজে পদবি সহ ইংরেজিতে নাম লেখেন অন্বেষার। সেই ছবি পোস্টও করেন অনুরাগী।

এই ঘটনায় বিরক্ত অভিনেত্রী নিজেও। তার মতে, উপযুক্ত জায়গায় এই রক্ত দিলে কাজে আসত! ছবি শেয়ার করে অন্বেষা লিখেছিলেন, “Please please না। না মানে না। এরম ভাবে নিজের হাত কেটে, নিজে কে কষ্ট দিয়ে পৃথিবীর কারুর জন্যই ভালোবাসা জাহির করতে যাবেন না। আমার বন্ধু আমায় msg টা দেখালো। আমি একদমই এই ধরনের msg কে নিজের প্রাপ্তি বলে মনে করি না। বরং আপনারা সুস্থ স্বাভাবিক হয়ে আমাদের পাশে থাকলে, আমাদের চলার পথ টা সুন্দর হবে। আমি অনুরোধ করছি এই ভাবে নিজে কে কষ্ট দিয়ে কারুর জন্য ভালোবাসা জাহির করবেন না। নিজের কথা টা ভবুন।”

Anwesha Hazra

ঊর্মির চরিত্রে অভিনয় করে বেশ জনপ্রিয়তা কুড়িয়েছেন অভিনেত্রী অন্বেষা হাজরা। ইন্ডাস্ট্রিতে বেশ অনেকদিন ধরেই পাকাপোক্ত জায়গা করে নিয়েছেন অভিনেত্রী। কাজললতা ধারাবাহিক দিয়ে ছোট পর্দায় অভিনয় জীবন শুরু করেন অন্বেষা। বেশ জনপ্রিয় হয় ধারাবাহিকটি। এরপর অন্বেষাকে দেখা যায় আমার ঠিকানা তাই বৃদ্ধাশ্রম ধারাবাহিকে। দুর্দান্ত অভিনয়ের সুবাদে ইতিমধ্যেই অসংখ্য ভক্ত সংখ্যা অন্বেষার।

Related Articles

Back to top button