গসিপবিনোদন

প্রতিভা থাকা সত্ত্বেও নিজের ভাইয়ের কেরিয়ার বরবাদ করেছিলেন আমির! নিজে মুখেই জানিয়েছিলেন ফয়জল খান

বলিউডের মিস্টার পারফেকশনিস্ট তিনি , যেকোনও কাজই নিখুঁত করতে ভালোবাসেন আমির খান (Aamir Khan) ,কয়েক দশক ধরেই বলিউডে রাজ্ করছেন আমির। তার হিট ছবির সংখ্যা গুনে শেষ করা যাবেনা , এছাড়াও আজও তিনি খুব বেঁচে বেঁচেই ছবি করেন। আর তার বছরে একটি ছবি প্রকাশ পেলেই তা সুপার ডুপার হিট হবেই হবে। এমনিতে বিতর্ক থেকে শত হস্ত দূরেই থাকার চেষ্টা করেন অভিনেতা ,কিন্তু বিতর্ক কোনওভাবেই তার পিছু ছাড়েনা।

দিন কয়েক আগেই কিরণ রাওয়ের সাথে দীর্ঘ সম্পর্কের ইতি টেনেছেন আমির। বিচ্ছেদের খবর সকলকে জানিয়ে অভিনেতা বলেছিলেন তিনি এবং কিরণ এখন কেবলই বন্ধু। এরপর তার নাম জড়ায় ,হাঁটুর বয়সী অভিনেত্রী ফাতিমা সানা শেখের সাথে। সম্প্রতি অভিনেতা আমির খানের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করেন তার নিজের ভাই ফয়জল খান ,তার অভিযোগ দাদা আমির খানের জন্যই তার কেরিয়ার বরবাদ হয়ে গিয়েছে।

একটি সাক্ষাৎকারে ফয়জল খান বলেছিলেন ,”আমির খান এত বড় অভিনেতা হয়েও একদিনের জন্যও কোনওরকম সাহায্য করেননি। আমার স্ক্রিপ্ট টুকুও পরে দেখেননি ,আমি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে সহকারী হিসেবেও কাজ করেছি। যতটুকু করেছি ততটুকুই নিজের চেষ্টায় “. আজ দীর্ঘ কয়েক দশক পরেও তার মনে দাদা আমিরের জন্য ক্ষোভ রয়েছে।

তিনি একথাও বলেছিলেন , আমিরকে ক্ষমা করে দিলেও তিনি যা করেছেন, তা কখনওই ভুলতে পারব না। ফয়জলের অভিযোগ ,তার পরিবারের সদস্যরা দীর্ঘদিন তাকে মানসিক রোগী ভেবে ঘর বন্দি করে রেখেছিলেন। তারা মনে করতেন ,ফয়জল মানসিক অবসাদগ্রস্ত এবং স্ক্রিৎজোফেনিয়া রোগে আক্রান্ত। তিনি রীতিমত বাড়ি থেকে পালিয়ে বেঁচেছিলেন। দীর্ঘদিন বলিউডেও কোনও কাজ করেননি তিনি। এ বার ‘ফ্যাক্টরি’ নামে একটি ছবির মাধ্যমে ফের বড় পর্দায় প্রত্যাবর্তন হবে তাঁর। এই ছবিটির পরিচালনাও করেছেন ফয়জল স্বয়ং। তিনি আমির খানের ভাইয়ের পরিচয়ে বাঁচতেও চাননি তিনি।

Related Articles

Back to top button