গসিপবিনোদনসিনেমা

অনুমানের জোরে রিয়াকে দোষী বানিয়েছিল মিডিয়া, একবছর পর কো-স্টারের সমর্থনে মুখ খুললেন ইমরান

গত বছরের ডাইনি অপবাদের তকমা ঘুচিয়ে ধীরে ধীরে স্রোতে ফিরছেন বলিউডের প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং  (Sushant Singh Rajput) রাজপুতের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী (Rhea Chakraborty)। সুশান্ত সিং রাজপুতকে মাদক সরবরাহ করার অভিযোগে গতবছর একমাস জেলেও ছিলেন তিনি। এছাড়াও একাংশের সংবাদমাধ্যম এবং নেটিজেনরা সুশান্তের মৃত্যুর জন্য তাঁকে দায়ী করে লাগাতার কদর্য মন্তব্য করতে থাকে। নিস্তার পায়নি রিয়ার পরিবারের লোকেরাও।

তাই সবমিলিয়ে গত বছরটা এক ভয়ঙ্কর মানসিক চাপের মধ্যে দিয়ে কাটিয়েছেন রিয়া। তবে সেই কঠিন পরিস্থিতি কাটিয়ে ধীরে ধীরে স্রোতে ফেরার চেষ্টা করে চলেছেন অভিনেত্রী। তাই এখন মাঝেমধ্যেই জনসমক্ষে ধরা দিচ্ছেন তিনি। খুব শীঘ্রই মুক্তি পেতে চলেছে রুমি জাফরির নতুন সিনেমা ‘চেহরে’। এই ছবিতে (Emraan Hasmi) অমিতাভ বচ্চন, ক্রিস্টল ডিসুজা এবং ইমরান হাশমির সাথে অভিনয় করতে দেখা যাবে তাঁকে। আগামী ২৭ আগস্ট সিনেমাটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে।

কিছুদিন আগেই ‘চেহরে’ ছবির পরিচালক রুমি জাফরি প্রকাশ্যে রিয়া চক্রবর্তী সম্পর্কে মুখ খুলেছিলেন। রিয়াকে উৎসাহ দিতে এদিন তিনি তাঁর প্রশংসা করে বলেছিলেন, ‘গতবছর রিয়া চক্রবর্তী সম্পর্কে ‘ডাইনি’-র মতো শব্দ ব্যবহার করা হচ্ছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। ‘চেহরে’ ছবিতে রিয়াকে দেখলে সমালোচকদের সমস্ত ধারণা সম্পূর্ণ বদলে যাবে।’ সেইসাথে পরিচালকের আরও সংযোজন, ‘রিয়া খুবই ভালো মনের মানুষ এবং ভালো পরিবারেরও মেয়ে। এবং রিয়ার ব্যক্তিগত জীবনের বিতর্ক একেবারেই ছবিতে প্রভাব ফেলবে না।’

রিয়া চক্রবর্তী Rhea Chakraborty

এবার এপ্রসঙ্গে মুখ খুললেন রিয়া আসন্ন সিনেমার সহ অভিনেতা তথা বলিউডের ‘কিসিং কিং’ ইমরান হাশমি। গতবছর রিয়া যেভাবে অনবরত মিডিয়া ট্রায়ালের পাশাপাশি এবং প্রয়াত অভিনেতার ফ্যানদের একের পর ভয়াবহ আক্রমণের মুখে পড়েছিলেন কড়া ভাষায় তার নিন্দা করেছেন ইমরান। এই বিষয়টিকে ইমরান ‘সম্পূর্ণরূপে অযৌক্তিক এবং অত্যন্ত অন্যায়’ বলে উল্লেখ করেছেন।

এপ্রসঙ্গে সংবাদমাধ্যমের একাংশের ওপর ক্ষোভ উগরে দিয়ে ইমরান বলেছেন ‘আপনারা তো একটি পরিবারের জীবন প্রায় ধ্বংস করেছেন এবং কিসের জন্য? কারণ একটা ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আপনাদের কিছু অনুমান। যার ওপর ভিত্তি করে মিডিয়ার একটি অংশ তাঁকে দোষী সাব্যস্ত করতে ঝাঁপিয়ে পড়লয? আমি মনে করি এটি সম্পূর্ণরূপে অনাকাঙ্ক্ষিত এবং খুব অন্যায়। আমি কল্পনাও করতে পারিনা তারা কিসের মধ্য দিয়ে গিয়েছেন। তাই এসব বাদ দিয়ে আপনারা প্রকৃত রিপোর্টিং কেন করেন না!

Related Articles

Back to top button