বিনোদনভিডিওসিরিয়াল

স্ত্রীর সামনেই প্রেমিকার সাথে সঙ্গম! পরকীয়ায় লীনাকেও হার মানায় একতা, ভিডিও দেখে ক্ষুব্ধ দর্শকরা

বাংলা সিরিয়াল মানেই পরকীয়ায় ছড়াছড়ি- দর্শকদের একাংশ মাঝেমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় এই অভিযোগ তুলে থাকেন। ‘গুড্ডি’, ‘ধুলোকণা’র এমন ট্র্যাক দেখে তো অনেকে আবার লেখিকা লীনা গাঙ্গুলীকেই (Leena Ganguly) ট্রোল করতে শুরু করেন। নায়ক-নায়িকার ডিভোর্স, নায়কের পরকীয়া, এক পুরুষকে নিয়ে দুই মহিলার টানাটানি- টেলিভিশনের পর্দায় এসব এখন খুবই সাধারণ ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে।

তবে পরকীয়া কি শুধুমাত্র বাংলা সিরিয়ালেই দেখানো হয়? ধারাবাহিকের পর্দায় অশ্লীলতার মাত্রা ছাড়ানো এখনই শুরু হয়েছে? উত্তরটা হল ‘না’। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একতা কাপুরের (Ekta Kapoor) বহু পুরনো একটি সিরিয়ালের একটি দৃশ্য ভাইরাল হয়েছে, যা থেকে প্রমাণিত হয় পরকীয়া বহু যুগ ধরে ধারাবাহিকে দেখানো হচ্ছে। বরং হিন্দি ধারাবাহিকের থেকে অনেক শালীনভাবে জিনিসটিকে বাংলা ধারাবাহিকে দেখানো হয়।

Ekta Kapoor sad

নেটপাড়ায় সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া ধারাবাহিকের দৃশ্যে দেখা গিয়েছে, ফুলশয্যার রাতে স্বামীর প্রেয়সীর কথা প্রথম জানতে পারে স্ত্রী। শুধু তাই নন, স্ত্রীর সামনেই প্রেমিকার সঙ্গে শারীরিকভাবে ঘনিষ্ঠ হতে শুরু করে দুশ্চরিত্র স্বামী। আজ থেকে প্রায় ১৭ বছর আগে এই দৃশ্য দেখানো হয়েছিল ‘ক্যায়সা ইয়ে প্যায়ার হ্যায়’ (Kaisa Ye Pyar Hai) ধারাবাহিকে।

পরকীয়া দেখানোয় শালীনতার সব সীমা অতিক্রম করা এই ধারাবাহিকের প্রযোজক ছিলেন একতা কাপুর নিজে। ‘ক্যায়সা ইয়ে প্যায়ার হ্যায়’ ধারাবাহিকের নায়ক-নায়িকার নাম ছিল অঙ্গদ এবং কৃপা। ধারাবাহিকে দেখানো হয়েছিল, ফুলশয্যার রাতে কৃপা তাঁর স্বামীর জন্য অপেক্ষা করছে। অপরদিকে অঙ্গদ মদ খেয়ে প্রেমিকাকে নিয়ে বাড়িতে ঢোকে। স্বামীর এই কাণ্ড দেখে অবাক হয়ে যায় কৃপা। এই দৃশ্য দেখে অঙ্গদ এবং তাঁর প্রেমিকাকে ঘর থেকে বেরিয়ে যেতে বলেন তিনি।

Kaisa Ye Pyar Hai suhagraat scene

কিন্তু অঙ্গদ বলেন, ‘আজ যা হবে সব কিছু এই ঘরের মধ্যেই হবে। আর তোমার চোখের সামনে হবে’। একথা শুনে কৃপা নিজে ঘর থেকে বেরিয়ে যেতে উদ্যত হয়। তা দেখে অঙ্গদ বলেন, বাইরে বাবা-মা রয়েছে। লোকলজ্জার ভয়ে ঘরের মধ্যেই থাকতে হয় কৃপাকে। আর তাঁর চোখের সামনে অঙ্গদ প্রেমিকার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হতে শুরু করে। এই দৃশ্য দেখে ঘরের এক কোণায় বসে চুপচাপ চোখের জল ফেলতে থাকে নায়িকা।

১৭ বছর আগে একতার ধারাবাহিকের এই চরম নোংরা দৃশ্য দেখে রীতিমতো চটে গিয়েছেন নেটিজেনদের একাংশ। শুরু হয়ে গিয়েছে তাঁকে ট্রোল করা। অনেকে আবার একতার সঙ্গে লীনা গাঙ্গুলীর তুলনা করে লিখেছেন ‘হারিয়ে যাওয়া বোন’। তাঁদের মতে, লীনা এখন ‘গুড্ডি’, ‘ধুলোকণা’য় যা দেখাচ্ছেন তাঁর ‘ছোট বোন’ একতা ১৭ বছর আগে ‘ক্যায়সা ইয়ে প্যায়ার হ্যায়’তে দেখিয়ে দিয়েছিলেন!

Related Articles

Back to top button