বিনোদনভিডিওসিরিয়াল

বিয়ের পর অবশেষে হচ্ছে হানিমুন! নিজেই সাত্যকি বাবুকে নিয়ে গাড়ি চালিয়ে হোটেলে পৌঁছাল উর্মি

সিরিয়াল মানেই দর্শকদের অত্যন্ত পছন্দের একটি বিষয়। অবসর সময়ে সিরিয়ালপ্রেমী দর্শকদের বিনোদনের অন্যতম খোরাক এই সিরিয়াল।সিরিয়ালের পোকা দর্শকদের কাছে অন্যতম জনপ্রিয় একটি সিরিয়াল হল জি বাংলার ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’ (Ei Poth Jodi Na Sesh Hoi)। মাত্র অল্প কয়েক দিনের মধ্যেই দর্শকদের মধ্যে পাকাপাকিভাবে জায়গা করে নিয়েছে এই সিরিয়াল।

আর সেই কারণেই টিআরপির দৌড়েও ছোট্ট ছোট্ট পায়ে এগিয়ে চলেছে ঊর্মি আর সাত্যকি বাবুর লাভ স্টোরি। আর পাঁচটা সিরিয়ালের সাংসারিক কূটকচালি থেকে একেবারে আলাদা এই সিরিয়াল। এই ধারাবাহিকের অন্যতম ইউএসপি হল একান্নবর্তী পরিবারের দুর্দান্ত সমীকরণ। এই ধারাবাহিকে নায়িকা উর্মির চরিত্রে রয়েছেন অভিনেত্রী অন্বেষা হাজরা (Anwesha Hazra) এবং নায়ক সাত্যকির চরিত্রে অভিনয় করছেন ঋত্বিক মুখার্জী (Writwik Mukherjee)।

ধারাবাহিকের শূরু থেকেই দেখা যায় বড়লোক বাড়ির মেয়ে ঊর্মির সাথে রেষারেষি রয়েছে সিরিয়ালের খলনায়িকার চরিত্রে থাকা রিনির। এই রিনির চরিত্রে অভিনয় করছেন বাংলা ধারাবাহিকের পরিচিত মুখ মিশমি দাস (Mishmee das)। সাত্যকি আর ঊর্মির ভালোবাসায় বারেবারে বাধা হয়ে দাঁড়াত সে।


ছোট বেলা থেকেই পাড়ার টুকাই দা ওরফে সাত্যকির জন্য মনে মনে ভালো লাগা ছিল রিনির, আর তার জেরেই প্রথম দিকে সাত্যকির বউ হিসেবে ঊর্মিকে মেনে নিতে পারেনি রিনি। আর সেকারণেই সারাক্ষণ ঊর্মিকে জব্দ করতে একেরপর এক ফন্দি আঁটত সে। কিন্তু কিছুদিন আগেই সিরিয়ালে এসেছে বড়সড় টুইস্ট।

প্রাণে বাঁচিয়ে পেত্নী থেকে রিনির বেস্ট ফ্রেন্ড হয়ে উঠেছে উর্মি। এতেই ফের একবার স্বাভাবিক ছন্দে ফিরেছে সরকার বাড়ির সদস্যরা। তাতেই বাড়ির সকলে মিলে ঊর্মি সাত্যকিকে হানিমুনে পাঠানোর ব্যবস্থা করে। কিন্তু হানিমুনেও উর্মি নিজের সাথে নিয়ে যায় মুমু আর রিনিকে। দেখা যায় সাত্যকিকে পাশে বসিয়েই গাড়ি চালিয়ে হোটেলে পৌঁছায় উর্মি। হোটেলে গিয়েই সমুদ্রে নামার জন্য লাফালাফি শুরু করে সে।এই ভিডিও চ্যানেলের তরফে শেয়ার করা হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

Related Articles

Back to top button