বিনোদনভাইরালভিডিওসিরিয়াল

‘সেই বস্তাপচা কাহিনী’! বিজয়ায় সত্যকির পা ছুঁয়ে প্রণাম করতেই কটাক্ষের সুর নেটিজেনদের গলায়

বাঙালি দর্শকদের কাছে বিনোদনের ডেলি ডোজ মানে বাংলা সিরিয়াল। সাংসারিক কূট কাচালি থেকে শুরু করে প্রেমকাহিনী নানা ধরণের সিরিয়ালই দেখতে পাওয়া যায় নানা চ্যানেলে। তবে অনেক সময় দর্শকদের অভিযোগ থাকে সিরিয়ালে ঘুরে ফায়ার সেই বস্তাপচা কাহিনীই দেখানো হয়। সম্প্রতি জি বাংলার জনপ্রিয় সিরিয়াল ‘এই পথ যদি না শেষ হয় (Ei Path Jodi Na Sesh Hoi)’ নিয়েও এমনই মন্তব্য করে ক্ষোভ উগরে দিলেন নেটিজেনরা।

বড়লোক বাড়ির মেয়ে উর্মির (Urmi) ট্যাক্সি চালানোর গল্প দিয়ে সিরিয়ালের কাহিনী শুরু হয়েছিল। এরপর অনেক কিছুই হয়েছে, শেষমেশ উর্মি আর সাত্যকি (Satyaki) বিয়ে হয়েছে। সিরিয়ালে বর্তমানে চলছে দুর্গাপুজো শেষে বিজয়ের পালা। আর বিজয়াতে বাড়ির সকলে সিঁদুর খেলার শেষে স্বামীদের প্রণাম করানোর দৃশ্য দেখানো হয়েছে। এই দৃশ্যেরই একটি টুকরো চ্যানেলের পক্ষ থেকে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করা হয়েছে।

Ei Path Jodi Na Sesh Hoi Serial Urmi Satyaki

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে ঠাম্মি দাদুকে প্রণাম করছে, এরপর দাদু ঠাম্মিকে আশীর্বাদ করছে। এই দেখে উর্মিও দৌড়ে হাজির হয়েছে সত্যকীবাবুর কাছে। গিয়ে সত্যকিবাবুকে প্রণাম করতেই চমকে উঠেছে সে। হটাৎ প্রণাম করছি কেন এই প্রশ্ন করতেই উর্মি সিঁদুরের কৌটো সাত্যকিবাবুর হাতে দিয়ে তাকে সিঁদুর পরিয়ে দিতে বলে। এরপর মাথায় ঘোমটা টেনে স্বামীকে প্রণাম করে আশীর্বাদ চেয়ে নিয়েছে উর্মি।

স্বামী স্ত্রীর এই টুকরো মুহূর্ত দেখে অনেকেই খুশি হয়েছেন তবে কিছু নেটিজেনদের মত আবার একেবারে আলাদা। নেটিজেনদের কিছুজনের মতে, আজকের দিনে যেখানে ছেলে ও মেয়েরা কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে এগিয়ে চলেছে সেখানে বরকে প্রণাম করার দৃশ্যটা দেখতে হবে! তাই একপ্রকার বস্তাপচা কাহিনী দেখানো হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন কিছুজন।

অবশ্য এই মতের বিরুদ্ধেও অনেকেই সরব হয়েছেন। সপক্ষে যুক্তি দেওয়া নেটিজেনদের মতে, এই রীতি আজ থেকে নয় বহুদিন ধরে চলে আসছে। আর প্রাচীন রীতি কোনোদিনই পুরোনো হয়ে যায় না, তাই যেটা হয়ে আসছে সেটা হতে দেওয়াই ঠিক। এই নিয়েই নেটিজেনদের মধ্যে আলোচনা শুরু হয়েছে। তবে সিরিয়ালের দৃশ্যটি যে নজর কেড়েছে সেটা বলা যেতেই পারে।

Related Articles

Back to top button