গসিপগানবিনোদন

পরকীয়া নাকি অন্য কিছু? বিয়ের এক বছর পেরোতেই দাম্পত্য কলহ, বিচ্ছেদের পথে দুর্নিবার-মীনাক্ষি!

গানের জগতে দুর্নিবার সাহা (Durnibar Saha) নামটা অনেকেরই চেনা। জি বাংলার (Zee Bangla) সারেগামাপা (Saregamapa) রিয়েলিটি শো দিয়েই শুরু হয়েছিল দুর্নিবারের যাত্রা। সারেগামাপা এর বিজয়ী হওয়ায় রাতারাতি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিলেন গোটা বাংলার মানুষের কাছে। এরপর একাধিক প্লেব্যাক করে মন জিতেছেন দর্শক ও শ্রোতাদের। সুরের জগতেরই আরেক পরিচিত নাম মীনাক্ষি মুখার্জী (Meenakshi Mukherjee)। ভালোবেসেই বিয়ে সারেন দুর্নিবার-মীনাক্ষি, কিন্তু সম্প্রতি তাদেরই বিচ্ছেদের গুঞ্জন (Durnibar Meenakshi Divorce Rumours) শোনা যাচ্ছে টলিপাড়ায় কান পাতলে!

দুর্নিবার ও মীনাক্ষির প্রেম দীর্ঘদিনের, গতবছরের ফ্রেব্রুয়ারি মাসে বিয়েও সারেন দুজনে। যদিও ২০১৭ সালেই আইনি বিয়ে সেরে ফেলেছিলেন দুজন,  তবে সামাজিক বিয়েটা বাকি ছিল। ২০২১ সালে সেই সামাজিক বিয়েটাও সেরে ফেলেন তাঁরা। সুরের জগতের এই জুটিকে মেড ফর ইচ আদার বলত অনেকেই। তাদের বিয়েতে ইন্ডাস্ট্রির একাধিক তারকারাও উপস্থিত হয়েছিলেন। সেই সমস্ত ছবি ভাইরাল হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়াতেও।

durnibar saha minakshi mukherjee

কিন্তু সামাজিক বিয়ের ১ বছর পেরোতেই কি ছন্দ হারিয়েছে দাম্পত্য জীবন? সেই থেকেই কি বিচ্ছেদের মেঘ দেখা দিয়েছে সম্পর্কে? সম্প্রতি ওঠা গুজ্ঞন এই সমস্ত প্রশ্ন তৈরী করেছে নেটিজেনদের মনে। সূত্রমতে জানা গিয়েছে বিয়ের পর নাকি আবারও এক নতুন সম্পর্কে জড়িয়েছেন দুর্নিবার। সেই সম্পর্কের জেরেই বিচ্ছেদের পথে দুই শিল্পী।

সংবাদ মাধ্যমের তরফ থেকে আসল সত্যি জানতে ফোনও করা হয়ে দুজনকেই। মীনাক্ষি ফোন তুলেছিলেন, তবে দুর্নিবারকে ফোনে পাওয়া যায়নি। মীনাক্ষিকে বিচ্ছেদের প্রসঙ্গে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি সাফ জানিয়ে দেন, এই বিষয়ে কোনো কথাই বলতে চান না তিনি। অন্যদিকে দুর্নিবারের ফোন না রিভিভ হওয়ায় কিছুই জানা জানা সম্ভব হয়নি।

প্রসঙ্গত, খুব অল্প সময়েই গানের জগতে পরিচিত গড়তে সক্ষম হয়েছেন দুর্নিবার। সারেগামাপা এর বিজয়ী হওয়ার পর থেকেই তাঁর জনপ্রিয়তা উর্ধমুখী। এমনকি বাংলা ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় গায়িকা ইমন চক্রবর্তী থেকে জয়তী চক্রবর্তীরা তাঁর গানের প্রশংসাও করেছেন। সাথে ছবিতে গানের প্লেব্যাক তো রয়েছেই। কিন্তু প্রিয় গায়কের এমন বিচ্ছেদের গুঞ্জনের খবরে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে ভক্তরা।

Related Articles

Back to top button