গসিপবিনোদনসিনেমা

সৌন্দর্যে দিব্যা ভারতীকেও হার মানাবে তারই বোন, রইল সুন্দরী কায়নাত অরোরার একগুচ্ছ ছবি

বলিউডে সুন্দরী অভিনেত্রীদের ছড়াছড়ি ঠিকই, তবে কিছু অভিনেত্রীর সৌন্দর্য যেন একটু বেশিই মনমুগ্ধকর। বলিউডের এমনই একজন সুন্দরী অভিনেত্রী হলেন দিব্যা ভারতী (Divya Bharti)। ইন্ডাস্ট্রিতে শ্রীদেবীর সাথে তুলনা করা হয় দিব্যা ভারতীকে। নিজের অভিনয় জীবনে অসংখ্য সুপারহিট ছবি উপহার দিয়েছেন অভিনেত্রী দর্শকদের। তবে অনেকেই হয়তো জানেন না অভিনেত্রী বোন কিন্তু সৌন্দর্যে টেক্কা দিতে পারেন দিব্যা ভারতীকেও।

৯০ এর দশকের অন্যতম সেরা সুন্দরী অভিনেত্রী দিব্যা ভারতীর বোন হলেন কায়নাত অরোরা (Kainaat Arora)। তিনিও বলিউডের একাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন। খাট্টা মিঠা, গ্রান্ড মস্তি, থেকে একাধিক হিট ছবিতে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে কায়নাতকে। এমনকি বলিউডের বাইরে দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রিতেও বেশ কিছু ছবিতে অভিনয় করেছেন অভিনেত্রী। আর  অভিনয়ের দৌলতে বেশ জনপ্রিয়তাও পেয়েছেন দর্শকদের কাছে।

Divya Bharati Sister Kainaat Arora

তবে অভিনেত্রী হিসাবে কায়নাত জনপ্রিয় হলেও অনেকেই জানেন না যে তিনি দিব্যা ভারতীর বোন হন। আসলে অনেক সময়  পরিবারের একজন সুন্দর হলে অনেকেই দেখতে সুন্দর হয়। তাছাড়া বলিউডে পরিবার সূত্রে অভিনয়ে অনেকেই আসেন। তেমনই কায়নাতও বলিউডে পা রেখেছেন। অবশ্য প্রথম দিকে পাঞ্জাবি ছবি দিয়েই কেরিয়ার শুরু করেছিলেন তিনি।

দুর্দান্ত অভিনয় আর আকর্ষণীয় ফিগারের কারণে সোশ্যাল মিডিয়াতেও বেশ জনপ্রিয় কায়নাত। লক্ষ অনুগামী রয়েছে তাঁর। অনুগামীদের জন্য মাঝে মধ্যেই ছবি ও ভিডিও শেয়ার করেন অভিনেত্রী। যা ব্যাপক ভাইরাল হয়ে পরে সোশ্যাল মিডিয়াতে। সম্প্রতি টাইট পোশাকে একটি ছবি শেয়ার করেছিলেন অভিনেত্রী। যেখানে স্পষ্ট দেখা মিলেছে ক্লিভেজের। আর সেই ছবি মুর্হুতের ভাইরালও হয়ে পড়েছিল।

তবে ছবি পাশাপাশি অভিনেত্রীর বোল্ড মুভস সহ  রিল ভিডিও আরও বেশি ভাইরাল হয়ে পরে নেটপাড়ায়। পাঞ্জাবি গানে মোহময়ী চাহনিতে কায়নাত যেন সত্যিই কায়ামত আনতে পারে। চাইলে আপনিও  একবার ঘুরে আসতেই পারেন কায়নাত অরোরার ইনস্টাগ্রামে।

প্রসঙ্গত, ৯০ এর দশকের অভিনেত্রী দিব্যা ভারতী  বর্তমানে আর আমাদের মধ্যে নেই। ১৯৯৩ সালে একটি  বিল্ডিঙের চার তোলা থেকে পরে মারা গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু এটা আদৌ আত্মহত্যা ছিল নাকি তাকে খুন করা হয়েছিল সেটা আজও জানা যায়নি। একপ্রকার  রহস্যই রয়ে গিয়েছে দিব্যা ভারতীর মৃত্যু।

Related Articles

Back to top button