বিনোদনসিনেমা

ছোট চুল আর হাতে বাঁশি! রানিমার বেশ ছেড়ে দিতিপ্রিয়ার আসন্ন ছবির লুকে তোলপাড় নেটপাড়া

দিতিপ্রিয়া রায় (Ditipriya roy) এই নামটা গত কয়েক বছরে টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে নিজেকে প্রমাণ করে দিয়েছে বারে বারে। সদ্য উচ্চমাধ্যমিক পাশ মেয়েটির অল্প দিনের কেরিয়ারে ইতিমধ্যেই জুড়েছে দামী দামী পালক। করুণাময়ী রানী রাসমণি সিরিয়ালে রানীমা চরিত্রে অভিনয়ের জেরে দীর্ঘ চার বছর ধরে সকলের খুব কাছে মানুষ হয়ে উঠেছেন অভিনেত্রী।

টিভির পর্দা থেকে সোশ্যাল মিডিয়া সর্বত্রই লক্ষ লক্ষ অনুগামী রয়েছে দিতিপ্রিয়ার। ধারাবাহিক শেষ হয়েছে কয়েক মাস হয়ে গেলেও দিতিপ্রিয়ার জনপ্রিয়তা কিন্তু একই রকম রয়েছে। আগেই জানিয়েছিলেন এই মুহুর্তে আর ধারাবাহিকের কাজে নিজেকে জড়াবেন না তিনি। বেশ খানিকটা সময় নিয়ে এবার বড় পর্দায় ফিরছেন দিতিপ্রিয়া।

রানী রাসমণি Rani Rashmoni Ditipriya Roy দিতিপ্রিয়া রায়

হাতে এখন তার পরপর কাজ। সম্প্রতি প্রকাশ পেয়েছে জয়দীপ মুখোপাধ্যায় পরিচালিত ‘তানসেনের তানপুরা’র সিক্যুয়েল অথবা তৃতীয় সিজন “রুদ্রবীণার অভিশাপ”এর টিজার! টিজারেই সম্পূর্ণ অন্য লুক এবং নতুন ধরনের একটি চরিত্রে দেখা মিলেছে দিতিপ্রিয়ার। টিজারের শুরুতেই দেখা গিয়েছে, আনন্দগরের রাজবাড়িতে বাগদান হচ্ছে শ্রুতি ও আলাপের, আর সেখানেই বাঁশিতে সুর তুলেছেন রানীমা। আর গল্পের চিরাচরিত ধারা অনুযায়ী এদিকে আনন্দগড় রুদ্রপুরের অভিশাপের ছোঁয়া লেগেছে সকলের জীবনে , সেই অভিশাপ থেকে কী কী বিপদ ঘনিয়ে আসছে তা জানতে হলে অপেক্ষা করতে হবে বড়দিন পর্যন্ত, কেননা ওই সময় মুক্তি পাবে এই সিজন।

রহস্যে রোমাঞ্চে ভরা এই সিরিজে এবার দেখা মিলবে রানীমারও, বলাই বাহুল্য এই সিরিজ দিয়েই ওটিটিতে অভিষেক হতে চলেছে দিতিপ্রিয়ার৷ প্রসঙ্গত, খুব শিগগিরই প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জির সঙ্গেও পর্দা ভাগ করে নিতে চলেছেন অভিনেত্রী। এই ছবিতে এক মফস্বলে বেড়ে ওঠা চিরন্তন বাবা-মেয়ের গল্প বলতে চলেছেন পরিচালক শৌভিক। যেখানে নিপাট সাধারণ একটি মেয়ের ছোট থেকে বড় হওয়া থাকবে। সেইসাথে থাকবে বাঙালি রীতি মেনে মেয়ের হাত ধরে বিয়ের মণ্ডপ পর্যন্ত পৌঁছে দেওয়ার গল্প। এই ছবিতেই প্রথমবার জুটি বাঁধতে চলেছেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় (Prosenjit Chatterjee) এবং পরিচালক সৃজিত মুখার্জী ঘরণী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা (Rafiat Rashid Mithila)। ছবিতে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের মেয়ের ভূমিকায় অভিনয় করবেন সকলের প্রিয় রানিমা দিতিপ্রিয়া রায়।

Related Articles

Back to top button