বিনোদনভিডিও

৭৫ বছর বয়সেও তাঁর তুলির টানে জীবন্ত মা দুর্গা ! Didi No 1-এর কুর্নিশ শিল্পী রেবা পালকে

সিরিয়াল ছাড়াও এই মুহূর্তে বাংলার মানুষের অত্যন্ত পছন্দের বিনোদনের অঙ্গ হল রিয়ালিটি শো। জি বাংলার জনপ্রিয় এমনই একটি রিয়ালিটি শো হল দিদি নাম্বার ওয়ান (Didi Number One)। অভিনেত্রী রচনা বন্দোপাধ্যায়ের অনবদ্য সঞ্চালনা এই অনুষ্ঠানকে দিনের পর দিন পৌঁছে দিচ্ছে জনপ্রিয়তার শিখরে। সেইসাথে এই অনুষ্ঠান পেয়েছে এক আলাদা মাত্রা।

জনপ্রিয় এই খেলায় অংশগ্রহণ করেন সেলিব্রেটি থেকে সাধারণ মানুষ সকলে। জীবনে চরম কঠিনতম পরিস্থিতিতেও হার না মেনে লড়াই চালিয়ে যাওয়া এবং জীবনে ঘুরে দাঁড়ানোর গল্প বলতে হাজির হন নানান বয়সের,নানান পেশার দিদিরা। যা শুনে অনুপ্রাণিত হয়ে থাকেন আরও হাজার হাজার মানুষ। এই শোতে এসেও একথা একবাক্যে স্বিকার করে নিয়েছেন অনান্য একাধিক প্রতিযোগিরা।

দিদি নাম্বার ওয়ানের এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমেই অসংখ্য মানুষের দুঃখ, কষ্ট, জীবনের না পাওয়া গুলোকে ভুলে জীবনে এগিয়ে যাওয়ার দৃঢ় মনোবলকে কুর্নিশ জানায় জি বাংলা। হাসি, মজা আর প্রচুর উপহারের ডালি নিয়ে প্রতিদিন বিকেলে রচনা বন্দোপাধ্যায়ের সঞ্চালনায় বাংলার দিদিদের নিয়ে বসে জমজমাট আসর।

সম্প্রতি এই অনুষ্ঠানে নিজের বাস্তব জীবনের কঠিন লড়াইয়ের গল্প শোনাতে এসেছিলেন কৃষ্ণনগরের বাসিন্দা ৭৫ বছর বয়সী বর্ষীয়ান শিল্পী রেবা পাল। তিন কাল গিয়ে এককালে ঠেকলেও ফিকে হয়নি তাঁর তুলির টান। এই বয়সে এসেও দুর্গা প্রতিমার পিছনে থাকা চালচিত্র আঁকেন তিনি। নিজের কল্পনার রঙে, রঙ তুলি দিয়ে রাঙিয়ে তোলেন দুর্গা প্রতিমার চালচিত্র। এদিন দিদি নম্বর ওয়ানের মঞ্চে এসেও নিজের সেই অসাধারণ শিল্পী সত্তার পরিচয় দিয়েছিলেন তিনি।

 

রঙ তুলি দিয়ে শিব ঠাকুর এবং মা দুর্গার অপরূপ ছবি এঁকেছিলেন তিনি। আর সামনেই দুর্গাপুজো। তাই আঁকা শেষে সেই ছবি বিশেষ উপহার হিসাবে তিনি তুলে দেন শোয়ের সঞ্চালক রচনা ব্যানার্জীর হাতে। সদ্য চ্যানেলের সোশ্যাল মিডিয়া পেজে এই পর্বের একটি ভিডিও ক্লিপিং শেয়ার করা হয়েছিল। ৭৫ বছর বয়সী বৃদ্ধার অসাধারণ শিল্পী সত্তার পরিচয় পেয়ে মন ভরে গিয়েছে নেটিজেনদের। তাই কমেন্ট বক্সে ভালোবাসায় ভরিয়ে দিয়েছেন নেটিজেনরা।

Related Articles

Back to top button