খবরবিনোদনভিডিওসিরিয়াল

সাজানো মিথ্যে দেখানো হচ্ছে জি বাংলার পর্দায়! দিদি নং ১ বন্ধের দাবিতে সরব নেটপাড়া

বর্তমান যুগে সোশ্যাল মিডিয়াতে মিম বা ট্রোল ব্যাপক পরিমাণে বেড়ে চলেছে। বিশেষত সেলেব্রিটিদের কোনো খুঁত একবার পেলে হয় মুহূর্তের মধ্যেই মিম থেকে ট্রোলিং শুরু হয়ে যায়। সম্প্রতি জি বাংলার ‘দিদি নং ১ (Didi No 1)’ রিয়্যালিটি শোকে নিয়ে ব্যাপক চর্চা শুরু হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। গত রবিবারের দিদি নং ১ এর বিশেষে পর্ব এই চর্চার মূল কারণ।

বিশেষ এই পর্বে সুন্দরবনের (Sundarban) এক পরিবারকে অতিথি প্রতিযোগী হিসাবে আনা হয়েছিল। জোৎস্না শী (Jyotsna Shi) নামের ওই প্রতিযোগী বাঘের সাথে লড়াই করে নিজের স্বামীকে বাঁচিয়েছিলেন। তিনি নিজেই সেই কাহিনী জানিয়েছেন টিভির পর্দায়। বাঘের সাথে লড়াই করে প্রাণে বাঁচলেও তার স্বামীর একটি হাত অকেজো হয়ে পরে। সেই হাতটিকে নিয়েই শুরু হয়েছে বিতর্কের।

Didi No 1 Sundorbon Sotry

রিয়্যালিটি শো চলাকালীন জোৎস্না শীর স্বামীর হাতটি জামার ভেতরে রাখা ছিল। জামার নিচে থেকে হাতটি ঝুলতেও দেখা গিয়েছে। কিন্তু যেহেতু জামার ভিতরে হাতটি রাখা ছিল তাই সোশ্যাল মিডিয়াতে এই ঘটনা নিয়ে শুরু হয়েছে তুমুল চর্চা। অনেকেই এই ঘটনাটিকে ভুয়ো ঘটনা দাবি করেন। শুরু হয় সোশ্যাল মিডিয়াতে ট্রোলিং, বিশেষত ফেসবুকে হাজারো মিম তৈরী হয়ে যায়।

নেটপাড়ায় দাবি উঠতে থাকে দিদি নং ১ এ ভুয়ো কাহিনী দেখানো হচ্ছে। আক্রান্ত ব্যক্তির ঝুলতে থাকা হাতের ছবি দেখিয়ে নানা ধরণের বাজে মন্তব্য করা হতে থাকে। এমনকি দিদি নং ১ বন্ধ করার দাবিতে সরব হয়ে ওঠেন নেটিজেনরা। কিন্তু আদৌ কি সাজিয়ে ভুল তথ্য দেখানো হয়েছে? এবার এই প্রশ্নের উত্তর মিললে আক্রান্ত পরিবারের পরিচিত এক মহিলা পদ্মাবতী মন্ডলের থেকে।

এদিন ফেসবুকে তিনি গোটা ঘটনার আসল সত্যিটা জানিয়েছেন সকলকে। তিনি নিজের পোস্টে জানান সত্যিই দরিদ্র পরিবারের মানুষ তারা। আর যে হাতটিকে দেখিয়ে মিম বা ট্রোল করা হচ্ছে সেই হাতটি পঙ্গু হয়ে যাওয়ায় এভাবেই ঝুলে থাকে। তাদের একটি মেয়ে রয়েছে যে একাদশ শ্রেণীতে পরে, খুব ভালো আঁকে। কিন্তু পরিবারের মূল ব্যক্তি পঙ্গু হয়ে পড়ায় চরম দারিদ্রতার সম্মুখীন গোটা পরিবার।

তিনি এও জানান, কোনো ভুয়া  ঘটনা নয়, সত্যিটাই জানানো হয়েছিল। এরপ তিনি ট্রোলারদের উদ্দেশ্য জানান, ‘যারা কটাক্ষ করছেন তারা দয়া করে দাদার সারাবছরের দায়িত্বটা নিন। কাউকে কটাক্ষ করাটা খুবই সোজা তবে তার পরিস্থিতি অনুযায়ী মোকাবিলা করা ততটাও সহজ নয় ‘!

Related Articles

Back to top button