বিনোদনসিরিয়াল

শৈশবে শিক্ষকের যৌন হেনস্থার শিকার হয়েছিলেন ‘গোপী বহু’ ওরফে দেবলীনা! চুপ ছিলেন সমাজের ভয়ে

‘সাথ নিভানা সাথিয়া’ সিরিয়ালের গোপী বহুকে নিশ্চই সকলেই চেনেন। অনেকের মতেই আদর্শ বউ মানেই গোপী বহু। কিন্তু সিরিয়ালের গোপী বহু কি সত্যি এতটা সংস্কারী আর নিরীহ? নাকি অভিনেত্রী দেবলীনা ভট্টাচার্যেরও (Devoleena Bhattacharjee) রয়েছে চমকে দেবার মত লুকস। আসলে সোশ্যাল মিডিয়াতে মাঝে মধ্যেই হট অবতারেও ধরা দেন অভিনেত্রী।

দিন কয়েক আগেই অভিনেত্রীর বেলি ডান্সের ভিডিও হুহু করে ভাইরাল হয়ে পড়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। এই ধারাবাহিকে দেবলীনাকে দেখা গিয়েছে একেবারে ঘরোয়া বধূ রূপে। কিন্তু বাস্তবে তিনি বেজায় সাহসী। কিন্তু ছোট বেলায় তার সাথে ঘটে যাওয়া ঘটনার তখন প্রতিবাদ করতে পারেননি অভিনেত্রী।

বিগবসের ঘরে এসে এক সময় কান্নায় ভেঙে পড়েছিলেন তিনি, কিন্তু তখনও তিনি জানাতে পারেননি তার আসল দুঃখের কারণ কী। তবে সম্প্রতি নিজের ছেলেবেলার বিষাক্ত কাহিনি নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী। সদ্যই ‘ফ্লিপকার্ট লেডিস ভার্সেস জেন্টলম‍্যান সিজন 2’-এর মঞ্চে এসেছিলেন দেবলীনা।

এই মঞ্চেই তিনি জানালেন তার এতদিনের জমে থাকা ক্ষোভ আর ঘেন্নাটা। তিনি জানান, ছেলেবেলায় অঙ্কের মাস্টারমশাই নোংরা ভাবে তাকে স্পর্শ করেন, কিন্তু সেই সময় তিনি পুলিশে অভিযোগ জানাতে চাইলেও তার বাবা মা বাধা দেয়। তিনি আরও জানান, শিক্ষক হিসেবে তিনি ভালো ছিলেন তাই ছাত্রছাত্রীর অভাব হতনা।

কিন্তু একটা সময় পর অনেকেই ওই স্যারের টিউশন ছেড়ে দেয়, কিন্তু দেবলীনা ছাড়েননি। বরং, মার সঙ্গে স্যারের বউয়ের কাছে গিয়ে নালিশ জানিয়েছিলেন তিনি। পুলিশে যাননি কেবল মা বাবার কথায়। কিন্তু এখন দেবলীনার মনে হয়, সেদিন পুলিশে যাওয়া উচিৎ ছিল। তিনি মনে করেন, প্রত্যেক মা-বাবার উচিত ছেলেমেয়েরা এই ধরনের অভিযোগ জানালে উপযুক্ত পদক্ষেপ গ্রহণ করা এবং আইনি ব্যবস্থা নেওয়া।

Related Articles

Back to top button