ঘণ্টায় ১৫০ কিমি গতিতে ধেয়ে আসছে বিধ্বংসী ঘূর্ণিঝড়, ভাসতে পারে উপকূলবর্তী বড়সড় এলাকা


করোনার ঘা শুকোতে না শুকোতেই ফের স্থলভাগে আছড়ে পড়তে চলছে ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড় বিটা। টেক্সাস ও লিউসিনিয়ায় এই ঝড়ের প্রভাব মারাত্মক হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এই ঝড়ের দাপটে কার্যত তছনছ হয়ে যেতে পারে মার্কিন উপকূল। বিশেষজ্ঞদের মত্র, এই ঝড়ের গতিবেগ ঘন্টায় ১৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত হতে পারে।

ইতিমধ্যেই মার্কিন উপকূল জুড়ে শুরু হয়েছে প্রবল বৃষ্টি। সমুদ্রেও শুরু হয়েছে তান্ডব। উত্তাল সমুদ্রে একেকটা ঢেউয়ের উচ্চতা প্রায় ৪ থেকে ৫ ফুট, ভেসে যাচ্ছে শহরাঞ্চল। প্রকৃতির এই রুদ্র মূর্তি দেখে এখন থেকেই ঝড়ের দাপট আঁচ করতে পারছেন এলাকার মানুষ। মার্কিন প্রশাসন ইতিমধ্যেই সতর্কতা জারি করে জানিয়েছে, বিধ্বংসী এই ঝড়ের কারণে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে প্রায় ১ কোটি মানুষ।

বেশ কয়েকদিন আগেই হ্যারিকেন লরা এই উপকূলেই আছড়ে পড়েছিল। সেই হ্যারিকেন সেন্টারই জানিয়েছে, বিটা টেক্সাসের দক্ষিণ উপকূলে সোমবার আছড়ে পড়তে পারে। এই দানবিক ঝড়ের প্রভাব থেকে বাঁচাতে ইতিমধ্যে অসংখ্য মানুষকে নিরাপদ স্থানে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। হ্যারিকেনের প্রভাব কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই ফের ভাসতে চলেছে মার্কিন উপকূল।


Like it? Share with your friends!

664
664 points