বিনোদনসিনেমা

দেবের পায়ে বাঙালির হকের ফুটবল! শিহরণ জাগাচ্ছে গোলন্দাজের রক্তগরম করা ট্রেলার

“সব খেলার সেরা বাঙালির তুমি ফুটবল
কি মধু আছে ওই তোমার নামেতে আহা ফুটবল…”

‘ধন্যি মেয়ে’ সিনেমার জন্য প্রখ্যাত গায়ক মান্না দে’র গাওয়া এই গানটিই সম্ভবত ফুটবল নিয়ে বাঙালির সেরা গান। বাঙালির ‘ফুটবল প্রেমী’ হয়ে ওঠার একটি লম্বা সংগ্রামের ইতিহাস রয়েছে। কিন্তু অদ্ভুত ভাবে আজ বিস্মৃতির অতলে তলিয়ে গিয়েছেন বাঙালির গর্বের খেলা ‘ফুটবল’এর জন্য সংগ্রাম করা মানুষটাই। একথা আক্ষেপের সুরে বলেছিলেন অভিনেতা দেবের (Dev) এর আসন্ন ছবি ‘গোলন্দাজ’এর (golondaaj) পরিচালক ধ্রুব ব্যানার্জি।

ফুটবলের যুগপুরুষ নগেন্দ্রপ্রসাদ সর্বাধিকারীর চরিত্রে এই পুজোয় পর্দায় ফিরছেন অভিনেতা দেব। বিশ্বকর্মা পুজোর দিনেই মুক্তি পেল বহু প্রতীক্ষিত গোলন্দাজ ছবির ট্রেলার। আর ট্রেলার দেখেই যেন আর ছবি মুক্তির দিন ১০ ই অক্টোবর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে পারছেন না দর্শকেরা। গায়ে কাঁটা দেওয়া ট্রেলারে বাঙালির ফুটবলের জন্য সংগ্রামের চিত্র ফুটে উঠেছে।

উনবিংশ শতাব্দীর শেষার্ধে দেশের মাটিতে ইংরেজদের খেলায় তাঁদের হারানোর শপথ নিয়েছিলেন নগেন্দ্রপ্রসাদ সর্বাধিকারী। কিন্তু এই ছবি নিয়ে চর্চা শুরুর আগে অধিকাংশ বাঙালিই তাঁর নামটুকুও জানতেন না। সেই কিংবদন্তি খেলোয়ারেরই জীবনের নানান টুকরো টুকরো কাহিনি পর্দায় ফুটিয়ে তুলবেন প্রযোজক তথা অভিনেতা দেব।

‘মরে যাব কিন্তু হেরে ফিরব না’, এই শপথ নিয়েই সেদিন ইংরেজদের বুটের সামনে ফুটবল পায়ে দাঁড়িয়েছিল একদল গ্রাম্য বাঙালি যুবক। পরাধীন ভারতে তখন ইংরেজ শাসন অব্যাহত, তবু নরেন্দ্র মনে করতেন ‘খেলার মাঠ মানুষকে বাঁধে, ভাঙে না’। অত্যাচারী শাসক ইংরেজদের বুটের সাথে খালি পায়ের এই লড়াই সহজ ছিলনা।

ছবিতে দেবের বিপরীতে ইশা সাহাকে দেখা যাবে নগেন্দ্রপ্রসাদ সর্বাধিকারীর স্ত্রী কমলিনীর ভূমিক়ায়। শোভাবাজারের রানি কমলিনী ছিলেন নগেন্দ্রর লড়াইয়ের অন্যতম একজন স্তম্ভ। দেবের অনস্ক্রিন বাবা, সূর্য কুমার সর্বাধিকারীর ভূমিকায় থাকবেন শ্রীকান্ত আচার্য। অন্যদিকে ইন্দ্রাশিস আচার্যর দেখা মিলবে জিতেন্দ্রর চরিত্রে। নগেন্দ্র প্রসাদের ভাই তথা বন্ধু বিনোদের চরিত্রে অভিনয় করছেন জন ভট্টাচার্য। স্বাধীনতা সংগ্রামী ভার্গবের চরিত্রে অভিনয় করছেন অনির্বাণ ভট্টাচার্য। ট্রেলারেই গায়ে কাঁটা দিয়ে উঠছে নেটিজেনদের, তাদের বিশ্বাস এই ছবি বাঙালির রক্তক্ষয়ী সংগ্রামের ইতিহাস ফের মনে করাবে এই প্রজন্মকে।

Related Articles

Back to top button