বিনোদনসিনেমা

বাংলার সুপারস্টার দেবের সাথে জুটি বাঁধছেন ফাটাকেষ্ট মিঠুন! আজ থেকেই শুরু হল সিনেমার শুটিং 

বুড়ো হাড়ে ভেলকি দেখাতে মিঠুন চক্রবর্তী ()-র জুড়ি মেলা ভার। তাই ৭২ বছর বয়সে এসেও আট থেকে আশি সকলের কাছেই সুপারস্টার হয়েই রয়ে গিয়েছেন বাংলার তথা গোটা দেশের ডিস্কো ডান্সার মিঠুন চক্রবর্তী। আমাদের দেশের অসংখ্য মানুষ মহাগুরু মিঠুন চক্রবর্তীর (Mithun Chakraborty) অন্ধভক্ত। দীর্ঘদিন পর বাংলার এই ঘরের ছেলেকে ছোট পর্দা ছেড়ে এবার বড় পর্দায় দেখার সুযোগ পেতে চলেছেন বাংলার দর্শক।

আজ সকাল থেকেই সল্টলেকের আই-এ ব্লকে শুরু হয়েছে বাবা ছেলের গল্প নিয়ে তৈরি দেব-মিঠুনের সিনেমা ‘প্রজাপতি’র শুটিং। প্রসঙ্গত এতদিন দেব মিঠুন জুটিকে দর্শক ছোটপর্দায় রিয়ালিটি শোয়ের মঞ্চে দেখেই অভ্যস্ত। তবে এবার বহুদিন পর বাংলা সিনেমায় অভিনয় করতে এসে উত্তেজনায় একেবারে টগবগ করে ফুটছেন মহাগুরু নিজেই।

আসলে এই সিনেমাটা এমনিতেই মিঠুন চক্রবর্তীর কাছে দারুন স্পেশাল।  কারণ সেই ১৯৭৬ সালে  মৃণাল সেনের ‘মৃগয়া’র পর প্রায় ৪৬ বছর পেরিয়ে আবার তিনি বড়পর্দায় জুটি বাঁধতে চলেছেন তাঁর প্রিয় অভিনেত্রী মম অর্থাৎ মমতাশঙ্কর -এর সাথে।

এদিন একটি নির্দিষ্ট বাড়িতেই দেব আর মিঠুনের বেশ কিছুব ঘরোয়া দৃশ্যের শুটিং হয়েছে। এদিন মিঠুনের পরনে ছিল পাজামা আর গেরুয়া হাফ পাঞ্জাবি। আর দেব  পড়েছিলেন শার্ট-প্যান্ট। এই দুই তারকা এই প্রথম সিনেমায় বাবা ছেলের চরিত্রে অভিনয় করছেন। যদিও আগেও হিরোগিরি সিনেমাতেওঁ  মিঠুন চক্রবর্তীকে বাবা বলেই  ডাকতে দেখা গিয়েছিল দেবকে। উল্লেখ্য দেবের টনিক সিনেমার পরিচালক অভিজিৎ সেনই হলেন এই সিনেমার পরিচালক।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Dev Adhikari (@imdevadhikari)


প্রসঙ্গত শ্যুট শেষে এদিন মহাগুরুর খাদ্য তালিকায় ছিল স্যান্ডুইচ। আর আগের দিন ছিল একেবারে বাঙালি থালি। সেই খাদ্য তালিকায় ছিল বিউলির ডাল, পোস্ত, ইলিশ মাছ, পোস্ত চিংড়ি।  আসলে বাংলার বাইরে থাকলেও বাঙালি খাবারের প্রতি মহাগুরুর ভালোবাসা কমেনি এক বিন্দু। ‘প্রজাপতি’র টুইস্ট নিয়ে এদিন সেভাবে কিছুই বলেননি মিঠুন। তবে দেবের প্রশংসায় এদিন অভিনেতা বলেছেন দেবকে ব্যক্তিগতভাবে ওনার দারুণ লাগে। সেইসাথে তিনি বলেন ‘খুব ভাল ছেলে। ঈশ্বর করুন ও যেন আরও বড় স্টার হয়।’

Related Articles

Back to top button