বিনোদনভিডিওসিরিয়াল

বিয়ের আগেই মা হলেই সমাজের চোখে খারাপ! বিয়ে নিয়ে অকপট পর্দার আলো অভিনেত্রী দেবাদৃতা 

বাংলা টেলিভিশন জগতের একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী হলেন দেবাদৃতা বসু (Debadrita Basu)। ইতিমধ্যেই ইন্ডাস্ট্রিতে তিনি পার করে ফেলেছেন বেশ কয়েক বছর। দীর্ঘদিনের অভিনয় জীবনে তিনি অভিনয় করেছেন বেশ কিছু জনপ্রিয় ধারাবাহিকে। এই মুহূর্তে তিনি অভিনয় করছেন সান বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘আলোর ঠিকানা’ -তে।

প্রসঙ্গত এই ধারাবাহিক শুরুর আগে দেবাদৃতাকে দেখা গিয়েছিল স্টার জলসার জনপ্রিয় সিরিয়াল ‘শ্রীকৃষ্ণ ভক্ত মীরা’-তে। ভগবান শ্রীকৃষ্ণের একনিষ্ঠ ভক্ত মীরা বাঈয়ের চরিত্রে অভিনয় করেও ছাপ ফেলেছিলেন দর্শকদের মনে। তবে এই সিরিয়াল শেষ হওয়ার পর দীর্ঘ নয় মাস অপেক্ষা করেছিলেন দেবাদৃতা। অবশেষে বিরতি কাটিয়ে আবার পর্দায় এসেছেন অভিনেত্রী।

তবে প্রথম সারির কোন বিনোদনমূলক চ্যানেলে নয় ইদানিং তাকে দেখা যাচ্ছে সান বাংলার জনপ্রিয় সিরিয়াল ‘আলোর ঠিকানা’-তে।  প্রসঙ্গত এই অভিনেত্রীর বাবা মা থেকে শুরু করে বোন গোটা পরিবারটাই যুক্ত অভিনয়ের সাথে। জানা যায় অভিনয়ে আসার আগে নাটক করতেন দেবাদৃতা। পরবর্তীতে জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘জয়ী’র হাত ধরে অভিনয়ের পথ চলা শুরু হয়েছিল তার. এই ধারাবাহিকে তার বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন জনপ্রিয় টেলি অভিনেতা দিব্যজ্যোতি দত্ত।

এই সিরিয়াল শেষ হতেই অভিনেত্রীকে দেখা গিয়েছিল জি বাংলার আরও একটি জনপ্রিয় সিরিয়াল ‘আলো ছায়া’-তে। এই ধারাবাহিকে তিনি জুটি বেধেছিলেন টেলি অভিনেতা অর্ণব ব্যানার্জীর সাথে। এই সিরিয়াল শেষ হতেই পরবর্তীতে তিনি সুযোগ পেয়ে যান স্টার জলসার জনপ্রিয় সিরিয়াল ‘শ্রীকৃষ্ণ ভক্ত মীরাবাঈ’-তে। এখন তিনি অভিনয় করছেন সান বাংলার আলো ঠিকানাতে। এই ধারাবাহিকে তার বিপরীতে দেখা যাচ্ছে জনপ্রিয় টেলি অভিনেতা জন ভট্টাচার্য কে।  প্রসঙ্গত এই নিয়ে দু দুবার আলো চরিত্রে অভিনয় করছেন দেবাদৃতা।

তবে দুটো চরিত্র সম্পূর্ণ আলাদা হওয়ায় ইদানিং নিজের চরিত্রটাকে চুটিয়ে  উপভোগ করছেন অভিনেত্রী। সম্প্রতি ইউটিউব চ্যানেল টলি ফোকাস কলকাতার সাথে আড্ডায় বসে ছিলেন অভিনেত্রী। সেখানে তিনি প্রকাশ্যে মুখ খুলেছিলেন বিয়ে থেকে শুরু করে বিয়ের আগে সন্তানের মা হওয়া এমনই নানা বিষয় নিয়ে।

দেবাদৃতা জানিয়েছেন বিয়ে নিয়েতার ভয় আছে যদি বিয়ের পর সেটা না টেকে ,যদি ডিভোর্স হয়ে যায়। তাছাড়া অভিনেত্রীর কথায় আজকের দিনে দাঁড়িয়েও আমাদের সমাজে কোন মেয়ের একবার বিয়ের পর ডিভোর্স হয়ে গেলে তাকে বাঁকা নজরেই দেখেন সবাই। আর কেউ যদি বিয়ের আগেই গর্ভবতী হয়ে যায় তাহলে তো সমাজে তার লাঞ্চনার শেষ থাকে না। তবে অভিনেত্রী নিজে মনে করেন কেউ যদি নিজের ইচ্ছায় একাই সন্তানকে মানুষ করার দায়িত্ব নিতে চায় তাহলে সে বিয়ের আগে মা হতেই পারে। তাই আজকের দিনে দাঁড়িয়েও এই ধরনের মানসিকতা বর্জন করা উচিত।

Related Articles

Back to top button