গসিপবিনোদন

একসময় হোটেলে ঝাড়ুদারের কাজ করতেন বাবা! বলিউডের দৌলতে কোটিপতি সুনীল শেট্টি, আজ সেই হোটেলের মালিক

বলিউড তারকা সুনীল শেট্টি (Sunil shetty) তার চলচ্চিত্র এবং অভিনয়ের জন্য পরিচিত। বলিউডের অ্যাকশন সিনে ‘আন্না’ ওরফে সুনীলের পারফরম্যান্স চিরকাল প্রশংসনীয়। এমনকি কমেডি সিনেও দর্শকদের মন ভরিয়ে দিয়েছেন অভিনেতা। আজ আর আলাদা করে তাই তার পরিচয় দেওয়ার প্রয়োজন নেই। বলিউডের অন্যতম ধনীদের তালিকায় প্রথম দিকেই উঠে আসে তার নাম। তার স্ত্রী মানা শেট্টির সম্পত্তির পরিমাণ এতটাই যে তাকে ‘লেডি আম্বানি’ বলে ডাকা হয়।

কিন্তু জানলে অবাক হবেন, খুব সাধারণ পরিবার থেকে উঠে এসেছিলেন সুনীল। সোনার চামচ মুখে নিয়ে জন্মাননি তিনি। আজ তিনি যেই সাফল্যের মুখ দেখেছেন তার জন্য এক কালে অমানবিক পরিশ্রম করতে হয়েছে তাকে। সম্প্রতি একটি নাচের রিয়েলিটি শো ইন্ডিয়ান বেস্ট ডান্সার ২ নামক একটি রিয়েলিটি শোতে উপস্থিত হয়ে তিনি তাঁর অতীত জীবনের সংগ্রামের কথা তুলে ধরেন অভিনেতা।

অভিনেতা সেই দুর্বিষহ দিনের কথা বর্ণনা করে জানান, যখন সুনীলের মাত্র ৯ বছর বয়স তখন মুম্বইতে আসেন তাঁর বাবা। পেটের দায়ে শহরতলীর একটি নামী হোটেলে ঝাড়ুদারের কাজ করতেন সুনীলের বাবা। কোনোওদিন সেই কাজের জন্য লজ্জাবোধ করেননি তিনি। কোনোও কাজকেই ছোট বলে মনে করতেন না সুনীলের বাবা ভিরাপা শেট্টি, বরং তিনি সর্বদা আস্থা রাখতেন পরিশ্রমে। চাইতেন তার সন্তানরাও যেন এই ভাবেই ভাবতে পারে।

বাবার প্রতি তাই শ্রদ্ধায় মাথা নত হয়ে আসে সুনীলের। তবে বাবার দেখানো পথ পরিশ্রমকেই কান্ডারী করে বাবাকে যোগ্য সম্মান দিয়েছেন অভিনেতা। তিনি জানান, যেসব হোটেলে বাবা কর্মচারীর কাজ করেছেন আজ সেই সব হোটেল আস্ত কিনে তার মালিক সুনীল শেট্টি।

সুনীলের বাবা ভিরাপাও ছেলের জন্য গর্বে বুক ফুলিয়ে ঘুরতেন। মাঝে মাঝেই সেটে আসতেন সুনীলের অভিনয় দেখতে। এই রিয়েলিটি শোতে সুনীলের সহ অভিনেত্রী করিশ্মা কাপুর তার বাবার প্রসঙ্গে জানান, এমন সদয় মানুষ খুব কম দেখা যায়। যতবার তাঁর সঙ্গে দেখা করেছিলাম,ততোবারই মন শ্রদ্ধায় ভরে গিয়েছে”।

Related Articles

Back to top button