গসিপবিনোদনসিনেমা

পছন্দের হিরোকে পেতে শেষে চাকরানী! সিনেমার নয়, গোবিন্দর প্রেমে এমনটাই করেছিলেন কোটিপতি মহিলা

প্রেমে পড়লে মানুষ কি না করে! আর সেই পছন্দের মানুষ যদি কোনো সেলিব্রেটি (Celebrity) হন তাহলে কোনো কথাই নেই। মানুষটা যখন ফিল্মি( Filmy) তখন তাঁকে প্রেম নিবেদনের কায়দাও তো ফিল্মি হবেই। এখানে কথা হচ্ছে বলিউডের কমেডি কিং তথা সুপারস্টার গোবিন্দাকে নিয়ে। এমনিতেই অভিনেতার জীবনটাই এমন পর্দায় বাইরেও সারাক্ষণ তাঁদের সহ্য করতেই ভক্তদের পাগলামি।

একবার এমনই এক প্রেমে পাগল ফ্যানের পাল্লায় পড়েছিলেন গোবিন্দা (Govinda)এবং তাঁর গোটা ফ্যামিলি। ঘটনাটা বাস্তবে ঘটলেও গল্পটা ছিল হুবহু গোবিন্দা অভিনীত ‘হিরো নং ওয়ান’ (Hero no one) সিনেমার মতো। এই সিনেমায় গোবিন্দাকে দেখা গিয়েছিল ধনকুবের ধনরাজ মলহোত্রার একমাত্র ছেলে রাজেশ মলহোত্রার ভূমিকায় । কোটিপতির ছেলে রাজু প্রেমে পড়েছিলেন নায়িকা করিশ্মা কাপুর অর্থাৎ মিনা মালহোত্রার প্রেমে।

ছবিতে গোবিন্দার মতোই বাস্তবে এক মহিলা পড়েছিলেন গোবিন্দার প্রেমে। জানা যায় কোটিপতি ব্যাবসায়ীর মেয়ে ছিলেন ওই মহিলা । সেসময় ৪-৫ টি গাড়ির মালিক ছিলেন ওই মহিলা। তিনি ভেবেছিলেন, পরিচারিকা হয়ে গোবিন্দার বাড়িতে ঢুকে প্রথমে তাঁর সঙ্গে বন্ধুত্ব পাতাবেন, পরে তাঁকে নিজের প্রকৃত পরিচয় দিয়ে প্রেমের প্রস্তাব দেবেন।

কিন্তু তা আর হয়ে ওঠেনি। তার আগেই একদিন কোটিপতি বাবার সঙ্গে ওই মহিলার কথোপকথন শুনতে পান গোবিন্দার স্ত্রী সুনীতা। এরপর তিনি গোবিন্দাকে জানান ওই মেয়েটির প্রতি তাঁর সন্দেহ হচ্ছে। এরপর গোবিন্দা নিজে গিয়ে ওই মহিলার সঙ্গে কথা বলেন । এরপর আসল কারণ জানতেই তাঁকে তাঁর বাড়িতে বাবার কাছে পাঠিয়ে দেন তিনি।যদিও গোবিন্দার বাড়িতে বাসন মেজে এতটুকু আক্ষেপ ছিল না ওই মহিলার।

প্রসঙ্গত ওই মহিলা জানতেন না গোবিন্দা বিবাহিত। উল্লেখ্য ইন্ডাস্ট্রিতে সুপারস্টার হওয়ার অনেক আগেই ১৯৮৭ সালে সুনীতার সাথে গোবিন্দার বিয়ে হয়ে গিয়েছিল। কেরিয়ারের স্বার্থে ইন্ডাস্ট্রি থেকে গোবিন্দাই এই খবর লুকিয়ে রেখেছিলেন। যদিও তা নিয়ে তাঁর স্ত্রীরও আপত্তি ছিল না।

Related Articles

Back to top button