গসিপবিনোদনসিনেমা

বলিউডের বাদশাহ হয়েও বিন্দুমাত্র অহংকার নেই, শাহরুখ খানের ব্যবহারের প্রশংসায় পঞ্চমুখ ভক্তরা

বলিউড সুপারস্টার শাহরুখ খানের (Shah Rukh Khan) জনপ্রিয়তা শুধুমাত্র ভারতেই নয়, বিদেশের রয়েছে। ‘গ্লোবাল আইকন’ তিনি। সারা বিশ্ব জুড়ে প্রচুর অনুরাগী রয়েছে তাঁর। তবুও তাঁর মধ্যে বিন্দুমাত্র অহংকার নেই। সম্প্রতি একথা জানিয়েছেন, তাঁর সঙ্গে কাজ করা একজন টেকনিশিয়ান।

শাহরুখকে অনুরাগীরা ভালোবেসে ‘কিং খান’, ‘বাদশা’ বলে অভিহিত করে থাকেন। নামটা যে ভুল দেননি, তা প্রতি মুহূর্তে প্রমাণ করেন তিনি। ‘বাদশা’র মতোই বারবার সকলের মন জয়ে করে নেন তিনি। সম্প্রতি শাহরুখের সঙ্গে কাজ করা এক টেকনিশিয়ান বলি সুপারস্টারের বড় মন এবং নিরহংকার ব্যবহারের কথা ফাঁস করেছেন।

Shah Rukh Khan

শাহরুখ সম্প্রতি একটি বিজ্ঞাপনের শ্যুটিং করছিলেন। সেখানেই নিজের ‘মিষ্টি’ ব্যবহারের মাধ্যমে কলাকুশলীদের মন জয় করে নেন। ‘বাদশা’র এই সুন্দর ব্যবহার ঘোর তো এখনও কাটছে না তাঁদের।

বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, রাতভর শ্যুটিং করছিলেন শাহরুখ। এরপর ফের পরদিন সকালে ছিল বিজ্ঞাপনের শ্যুটিংয়ের কল টাইম। রাতে শ্যুট থাকায় সকালে সেটে পৌঁছতে অভিনেতার সামান্য দেরি হয়ে যায়। ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির কলাকুশলীরা তারকাদের এমন ব্যবহারে অভ্যস্ত। সুপারস্টাররা তো এমন করবেনই, তাই ভেবেছিলেন চিত্রগ্রাহক লরেন্স ডিকুনহা (Lawrence Dcunha)। কিন্তু এরপর সকলকে অবাক করে দিয়ে এক কাজ করেন ‘বাদশা’।

Shah Rukh Khan

শাহরুখের বিজ্ঞাপনের চিত্রগ্রাহকের কথায়, সেটে দেরি করে পৌঁছনোর জন্য প্রত্যেক কলাকুশলীর কাছে ক্ষমা চেয়ে নেন বলি সুপারস্টার। লরেন্সের কথায়, ‘শাহরুখ খানের সঙ্গে এই প্রথম আমি কাজ করলাম। এত বড় একজন অভিনেতা, এত বিখ্যাত একজন মানুষ, তবুও তাঁর কী মিষ্টি ব্যবহার! দেরি করে আসার জন্য প্রত্যেকের কাছে যেভাবে তিনি ক্ষমা চেয়ে নেন, তাতে আমরা প্রত্যেক কলাকুশলী মুগ্ধ হয়ে গিয়েছি’।

শুধু তাই নয়, লরেন্স জানিয়েছেন, প্রত্যেক কলাকুশলীকে তাঁদের নামে ডাকেন শাহরুখ। সকলকে যোগ্য সম্মান দেন তিনি। সবার সঙ্গে হাসি, ঠাট্টা, মজা করেন তিনি। লরেন্সের কথা শুনেই বোঝা যাচ্ছে, বলিউডের ‘বাদশা’ হয়েও নিজের ব্যবহারের মাধ্যমে প্রত্যেকের মন জয় করে নিয়েছেন তিনি।

Related Articles

Back to top button