গসিপবিনোদনসিনেমা

দিনদিন কমছে বাংলা সিনেমার দর্শক! ‘বাকিদের নকল করতে গিয়েই বেহাল ইন্ডাস্ট্রি’, বলছেন চিরঞ্জিৎ

বাঙালির কাছে বিনোদন বলতে সিনেমার নাম সবার আগেই উঠে আসবে। আজ থেকে নয় বিগত বেশ কয়েক দশক ধরেই বাংলা সিনেমা ছিল বিনোদনের রসদ। কিন্তু সময়ের পরিবর্তনের সাথে সাথে বাংলা সিনেমার আগের সেই আকর্ষণ যেন কোথায় হারিয়ে যাচ্ছে। সিনেমা যে তৈরী হচ্ছে না তা নয়, তবে দর্শকেরা এখন আর সেভাবে বাংলা ছবি দেখছেন না। এবার এই প্রসঙ্গে মুখ খুললেন বিখ্যাত বাঙালি অভিনেতা চিরঞ্জিৎ চক্রবর্তী (Chiranjeet Chakraborty)।

বাংলা সিনেমায় চিরঞ্জিৎ একসময় সুপারহিট ছিলেন। একেরপর এক সুপারহিট ছবি উপহার দিয়েছেন দর্শকদের। কিন্তু বর্তমানে বাংলা ছবি আর আগের মত দর্শকদের আকর্ষণ করে না বা তাদের মনে প্রভাব ফেলতে পারে না। সম্প্রতি বাংলা সিনেমার এই হাল নিয়েই মুখ খুলেন অভিনেতা। যদিও দর্শকদের দোষ দেননি তিনি তবে ইন্ডাস্ট্রির বিরুদ্ধে কিছু অভিযোগ করেছেন চিরঞ্জিৎ।

সম্প্রতি এক সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন, ‘ দর্শকেরা বদলে গিয়েছে এটা আমি সত্যিই বিশ্বাস করি না। একসময় এই দর্শকেরাই বাংলা সিনেমার জন্য  পাগল ছিল, তারা আজ পাল্টে গেছে ইটা ঠিক নয়। হ্যাঁ এটা ঠিক যে কিছু মানুষ পাল্টেছে, তবে সেটা খুবই কম সংখ্যক। দর্শকেরা একসময় শাম্মি কাপুরের সিনেমা উপভোগ করেছে, এরপর হানি সিংয়ের গানও বেশ উপভোগ করেছে, তবে রূপম ইসলামের গানও কিন্তু বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে এই দর্শকদের কাছেই। এখন আবার বাংলা সিরিয়াল ভক্ত হয়েছেন অনেকে, যদি দর্শকেরা পাল্টেই যেত  তাহলে এমনটা হয়তো হত না’।

অভিনেতার মতে, আগের থেকে আজকের দিনে সিনেমা আর সিনেমা তৈরির ধরণ দুটোতেই অনেকটা পরিবর্তন এসেছে। আমরা বাংলা সিনেমার পাশাপাশি বিশ্ব স্তরের ছবিও দেখতে পছন্দ করছি। আর সেই দেখে আমরাও চাইছি বাংলা সিনেমাকে একইরকম করে তুলতে। যেকারণে বাঙালি দর্শকের থেকে আলাদা হয়ে যাচ্ছে বাংলা সিনেমা। কিছু লোক অবশই এমনও আছে যাঁরা এই নতুন ধরণের ছবি পছন্দ করেন তবে সেটা খুব বেশি সংখ্যক নয়।

প্রসঙ্গত, অভিনয়ের পর্দায় বেশ কিছুদিন দেখা মেলেনি চিরঞ্জিৎ চক্রবর্তীর। তবে এবছর পুজোয় রিলিজ হওয়া ‘ষড়রিপু ২: যতুগৃহ’ ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। তবে ছবিটি সেভাবে প্রভাব ফেলেনি দর্শক মহলে। অনেকের মতেই ছবিটি সেভাবে সফল নয়। ছবিতে চিরঞ্জিতের পাশাপাশি শ্বাশ্বত চট্টোপাধ্যায়কেও দেখা গিয়েছে।

Related Articles

Back to top button