খবরভাইরাল

বিশ্বের সবচাইতে বড় দুধের দাঁত নিয়ে গিনিস বুক অফ রেকর্ডে নাম তুলল ৮ বছরের খুদে

দাঁত (Teeth) থাকতে দাঁতের মর্যাদা বোঝ না! এই প্রবাদ ছোট থেকে হয়তো সকলেই কমবেশি শুনে এসেছেন। এমনকি বড় হয়েও প্রায়শই কানে আসে কথাটি। রূপকের ছলে হলেও দাঁতের যত্নের কথা বলা হয়েছে এই বহুপুরানো প্রবাদে। কে বলতে পারে এই দাঁতের জন্য হয়তো হয়ে যেতে পারে বিশ্ব রেকর্ড! কি ভাবছেন ঠাট্টা করছি? না না মোটেই না। পৃথিবীতে মানুষের রেকর্ডের (Record) অন্ত নেই। আর রেকর্ডের সেই লম্বা তালিকায় রয়েছে দাঁতের নামও।

ইয়া বড় দুধের দাঁত নিয়েই বিশ্ব রেকর্ড (World) করেছে এক ৮ বছরের খুদে বালক। শুধু তাই নয় গিনিস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে (Guinness Book of World Record) নাম উঠতে চলেছে তাঁর। ভাবুন দেখি একবার যে বয়সে দুধের দাঁত পরে গেলে কবে আবার নতুন দাঁত গজাবে সেই চিন্তায় মগ্ন হয়ে থাকে সকলে, সেই বয়সেই কিনা বিশ্ব রেকর্ড। খুদে এই ছেলের নাম বুল্টন, কানাডার (Canada) বাসিন্দা সে।

longest milk tooth guinness book of world record

সাধারণত বাচ্চারা বড় হতে থাকলে তাদের দুধের দাঁত পরে যায়। বদলে নতুন দাঁত গজায়। কিন্তু বুল্টনের ক্ষেত্রে ব্যাপারটা একই হলেও একেবারে আলাদা। কারণ একজন প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষের দাঁতের দৈর্ঘ ২০ মিলিমিটার পর্যন্ত হতে পারে। অর্থাৎ দুধের দাঁত পরে যাবার পর গজানো দাঁতের লম্বাই ২০ মিলিমিটার। সেখানে ৮ বছর বয়সেই বুল্টনের দাঁতের দৈর্ঘ্য ২.৬ সেন্টিমিটার। আর এই কারণেই সবচাইতে লম্বা দুধের দাঁতের রেকর্ড করে ফেলেছে বুল্টন।

longest milk tooth guinness book of world record

২০১৯ সালে কানাডার ডেন্টাল ডাক্তার ক্রিস ম্যাকআর্থারের কাছে আনা হয়েছিল বুল্টনকে। এরপর তার দুধের দাঁত তুলতে গিয়েই চক্ষু চড়ক গাছ সকলের। এতবড় দুধের দাঁত  কখনোই দেখেননি কেউ। দাঁতটি নিজের কাছে যত্ন করে রেখে দেন ওই চিকিৎসক। এর বেশ কিছুদিন পর বিশ্ব রেকর্ডে নাম তোলার ব্যাপারে আগ্রহী হন ওই চিকিৎসক ও বুল্টনের পরিবার। যেমনি কথা তেমনি কাজ যোগাযোক করে প্রয়োজনীয় কাজ সেরে ফেলা হয়।

longest milk tooth guinness book of world record

এরপর জানা যায় প্রথিবীর সবচাইতে বড় দুধের দাঁতের রেকর্ড করে ফেলেছে বুল্টন। এর আগে এই রেকর্ডটি ছিল ওহাইয়োর কার্টিস বাড্ডি নামক এক ছেলের। আগের রেকর্ডধারীর দাঁতের দৈর্ঘ্য ছিল ২.৪ সেন্টিমিটার। তার থেকেও ২ সেন্টিমিটার বেশি লম্বা বুল্টনের দাঁত।

Related Articles

Back to top button