গসিপবিনোদনভিডিও

বাংলার দেবস্মিতার গানে মুগ্ধ! Indian Idol’এ প্রতিযোগীর ঋণ শোধ করার দায়িত্ব নিলেন বরুণ ধাওয়ান

টেলিভিশনের অন্যতম জনপ্রিয় গানের রিয়্যালিটি শো হল ‘ইন্ডিয়ান আইডল’ (Indian Idol)। এই শোয়ের হাত ধরে যে কত নামী গায়ক-গায়িকা পরিচিতি পেয়েছেন তা গুনে শেষ করা যাবে না। এখন টিভির পর্দায় সম্প্রচারিত হচ্ছে ‘ইন্ডিয়ান আইডল’এর ত্রয়োদশ সিজন। চলতি বছর বাংলা থেকে একঝাঁক সঙ্গীতশিল্পী খেতাব জয়ের লড়াইয়ে নেমেছেন। দেবস্মিতা (Deboshmita Roy), সঞ্চারী, সেঁজুতিরা নিজের গানের মাধ্যমে মুগ্ধ করছেন প্রত্যেককে।

গত সপ্তাহান্তে যেমন বিখ্যাত এই গানের শোয়ে অতিথি হিসেবে গিয়েছিলেন ‘ভেড়িয়া’ ছবির নায়ক-নায়িকা বরুণ ধাওয়ান (Varun Dhawan) এবং কৃতি শ্যানন। ‘থ্যাঙ্ক ইউ মা’ স্পেশ্যাল এপিসোডের সাক্ষী থেকেছেন দু’জনে। প্রত্যেক প্রতিযোগীর গান শোনার পরই ছলছল করে উঠেছে বরুণ-কৃতির চোখ। তবে সবার মাঝে আলাদা করে নজর কেড়েছেন বাংলার মেয়ে দেবস্মিতা রায়।

Deboshmita Roy Indian Idol

‘থ্যাঙ্ক ইউ মা’ স্পেশ্যাল এপিসোডে বঙ্গ তনয়া দেবস্মিতা ‘তু কিতনি আচ্ছি হ্যায়’ গানটি গেয়েছিলেন। তাঁর সুরেলা কণ্ঠে এই আবেগঘন গানটি শুনে চোখের জল আটকাতে পারেননি কেউ। গান শেষ হওয়ার পর বলিউড তারকা বরুণ জানান, তিনি দেবস্মিতার গানের অনেক বড় ভক্ত।

বাংলার এই প্রতিভাবান সঙ্গীতশিল্পী নিজের মায়ের ইচ্ছাপূরণ করতেই ‘ইন্ডিয়ান আইডল’এ গিয়েছেন। দেবস্মিতার বহুদিনের ইচ্ছা ছিল মায়ের জন্য একটি ওয়াশিং মেশিন কিনবেন। কয়েকদিন আগে নিজের সেই স্বপ্ন পূরণ করেছেন তিনি। ইএমআই’তে মা’কে একটি কাপড় কাঁচার মেশিন কিনে দিয়েছেন এই বঙ্গ তনয়া।

Deboshmita Roy Indian Idol

দেবস্মিতার গান শেষ হওয়ার পর বরুণ তাঁকে বলেন, ‘আমি যখন জানতে পেরেছিলাম যে তুমি তোমার মায়ের জন্য ওয়াশিং মেশিন কিনতে চাও, তখন আমি নিজেই ঠিক করে ফেলেছিলাম যে ওটা তোমায় উপহার করব। কিন্তু এখানে আসার পর জানতে পারি তুমি নিজেই সেটা কিনে ফেলেছো। তাই না?’ জবাবে মাথা নেড়ে সম্মতি জানান দেবস্মিতা।

এরপর ‘ভেড়িয়া’ তারকা বলেন, ‘তুমি ওয়াশিং মেশিনটা ইএমআইতে কিনেছো আমি জেনেছি। তোমায় ইএমআই নিয়ে আর কিছু ভাবতে হবে না। আমি ওটা দেখে নেব। তোমার যদি আর কিছু লাগে আমায় বলো। ড্রায়ার লাগলে বলো আমি সেটারও ব্যবস্থা করে দেব’। বলিউড তারকার এই মানবিক দিক দেখেই মুগ্ধ হয়ে গিয়েছেন প্রত্যেকে। একজন যেমন লিখেছেন, ‘তোমার এই মায়া-দয়ার জন্যই বাকিদের থেকে তুমি আলাদা বরুণ’। আর একজন আবার লিখেছেন, ‘তোমায় নিয়ে আমরা গর্বিত বরুণ’।

Related Articles

Back to top button