বিনোদনসিনেমা

হলিউডের থেকে বেশি সুরক্ষিত বলিউড! শুটিং চলাকালীন মৃত্যু নিয়ে মন্তব্য স্টান্ট ডিরেক্টরদের

সম্প্রতি হলিউডে (Hollywood)সিনেমার শুটিং চলাকালীন গুলি ভরা বন্দুক দিয়ে শুটিং করতে গিয়ে ঘটে গিয়েছে এক মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। জানা গেছে এদিন নিউ মেক্সিকোতে অ্যালেক বল্ডউইনের নতুন সিনেমা ‘রাস্ট'(Rust) -এর শুটিং চলছিল। সেসময় অ্যালেক বল্ডউইন (Alec Baldwin) মেকআপ ভ্যান থেকে নেমে শুটিং স্পটে হাজির হলে একটি অ্যাকশন দৃশ্যের শুটিংয়ের জন্য তাঁর হাতে বন্দুক তুলে দেন,যেটি আদতে ছিল একটি গুলি ভর্তি বন্দুক।

উল্লেখ্য সিনেমায় সাধারণত এধরনের দৃশ্যের শুটিং চলাকালীন খেলনা বন্দুকে তুলে দেওয়া হয় অভিনেতাদের হাতে। এদিন অ্যালেক বল্ডউইনও ওই গুলি ভর্তি বন্দুকটিকে খেলনা বন্দুক ভেবেই গুলি চালান। সেই গুলি গিয়ে লাগে শুটিং ফ্লোরে উপস্থিত মহিলা চিত্রগ্রাহক (Photographer) হালিনা হাচিন্সের (Halyna Hutchins) গায়ে। তাতেই মাটিতে লুটিয়ে পড়ে যান তিনি। এরপর গালিনাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এছাড়াও অসুস্থ সিনেমার পরিচালক। এই মুহূর্তে হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে তাঁর।

প্রসঙ্গত এদিন অ্যালেক বাল্ডউইনকে একটি আসল গুলি ভর্তি বন্দুক দেওয়া এবং তাঁর গুলিতে চিত্রগ্রাহক হেলেনা হাচিন্সের মৃত্যুর ঘটনায় বলিউডের অ্যাকশন পরিচালকরাও হতবাক হয়েছেন। আর সবথেকে আশ্চর্যের বিষয় হল এই যে হলিউডের মতো হাই প্রোফাইল ইন্ডাস্ট্রি, যেখানে কার্যত নিরাপত্তায় মুড়ে রাখা হয় সিনেমার সেট সেখানে কীভাবে এমন ঘটনা ঘটতে পারে তাও ভাবাচ্ছে সকলকে।

আর খুব স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনার পর প্রশ্ন উঠছে সিনেমার শুটিং চলাকালীন বলিউডের (Bollywood) নিরাপত্তা কতখানি তা নিয়ে। তবে এ প্রসঙ্গে বলিউডের স্টান্ট আর্টিস্টস অ্যাসোসিয়েশনের স্টান্ট ডিরেক্টর এবং সাধারণ সম্পাদক এজাজ গুলাব বলেন, ‘আমাদের এখানে খুব নিরাপদভাবে শুটিং করা হয়। বন্দুক থেকে কেবল ‘ব্লাঙ্ক ফায়ার’ করা হয়।’

এছাড়া এই ধরনের শুটিংয়ে থাকে বেশকিছু নিয়ম। এপ্রসঙ্গে বলিউডের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে ডামি বন্দুক সরবরাহকারী সংস্থার প্রধান গৌরব জানান ‘লাল সিং চাড্ডা’ ছবিতে, শুটিং চলাকালীন সাত থেকে আট হাজার রাউন্ড গুলি ছোড়া হয়েছিল, কিন্তু কারও কোনো ক্ষতি হয়নি। আসলে বন্দুক দিয়ে শুটিং করার অনেক নিয়ম আছে। প্রথমত, গুলি চালানোর সময় কারও দিকে নিশানা করা যায় না, এছাড়া গুলির ম্যাগাজিন খালি থাকে। আর বাদবাকি গুলির শব্দ থেকে ধোঁয়ার প্রভাব সবটাই পোস্ট প্রোডাকশনে করা হয়ে থাকে। তাই আজ পর্যন্ত এমন কোনো সমস্যা হয়নি।’

Related Articles

Back to top button