গসিপবিনোদনলাইফ স্টাইলসিনেমা

বয়স ৪০ পেরোলেও যৌবন থাকবে অক্ষত! রইল নায়িকাদের গোপন ডায়েট চার্ট

নিজেকে সুন্দরী দেখাতে সকল মহিলাই চান। প্রত্যেকেরই মনে সুপ্ত বাসনা তাকেও দেখতে বেশ নায়িকার মতে হবে। এই যেমন ধরুন ঐশ্বর্য রাই বা কারিনা কাপুর এর মত। আসলে এমন চাহিদাটা হবারও বেশ কিছু কারণ রয়েছে। সিনেমার নায়িকাদের দেখলে বোঝা মুশকিল তাদের আসল বয়স কত। ইন্ডাস্ট্রিতে অনেকেরই বয়স পেরিয়েছে যৌবনকাল পেরিয়ে গেছে, কিন্তু তাদের রূপ যেন আটকে গিয়েছে যৌবনেই।

অবশ্য এর পিছনে রয়েছে কিছু রহস্য, তা সে শরীরচর্চায় হোক বা ডায়েট মেনে চলাই হোক। একবার ভাবুন তো অভিনেত্রীদের এই গোপন ডায়েট যদি জানতে পারা যায়! একেবারে তাদের মত না হতে পারলেও নিজের চেহারা থেকে শরীরের সৌন্দর্য ধরে রাখতে অনেকটা সুবিধা হবেই হবে।

এবার অভিনেত্রীদের যৌবন ধরে রাখার কিছু গোপন ডায়েটের তথ্য নিয়েই হাজির হলাম বংট্রেন্ডের পর্দায়। এই তালিকায় সামিল রয়েছে বলিউডের কাজল ও মালাইকা থেকে শুরু করে ঐশ্বর্য রাইয়ের ডায়েট।

kajol

বলিউডের অভিনেত্রী কাজল (Kajol)। বর্তমানে ৪৬ বছর বয়স অভিনেত্রীর, অথচ তাকে দেখে সেটা বোঝা মুশকিল। জানা যায় অভিনেত্রী একেবারে ডায়েট ফলো করে ছিলেন। সারাদিনে তিনবার ভারী খাবার খান। বাকি সময় হালকা ও স্বাস্থ্যকর খাবার খেতেই পছন্দ করেন।

বলিউডের আরেক সুন্দরী ও দারুন ফিগারের অধিকারী অভিনেত্রী হলেন মালাইকা অরোরা (Malaika Arora)। বয়স ৪৭ হলেও অভিনেত্রীর ফিগার দেখে এখনো হাজারো পুরুষ ভিরমি খাবেন। যোগাভ্যাসের পাশাপাশি খাবার দিক থেকেও ডায়েট মেনে চলেন অভিনেত্রী। সাধারণত বাকিরা যেখানে রাত করে খাবার খান সেখানে অভিনেত্রী সন্ধ্যে  সাতটার মধ্যেই রাতের ভারী খাবার সেরে ফেলেন। আর খাবারের তালিকা থেকে উচ্চ ক্যালোরির খাবারে একেবারেই দূরে সরিয়ে রাখতেই বেশি পছন্দ করেন।

Madhuri Dixit

বলিউডের ড্রিম গার্ল মাধুরী দীক্ষিত (Madhuri Dixit)। বর্তমানে অভিনেত্রীর বয়স ৫৪, কিন্তু হাফ সেঞ্চুরি পেরিয়েও অভিনেত্রীর রূপ কিন্তু আটকে আছে যৌবনেই। অভিনেত্রী নিয়মিত হালকা ও স্বাস্থ্যকর খাবারের ডায়েট পালন করেন। খাবারের টাইম মেনে চলেও ও ডাবের জল খান প্রতিনিয়ত।

Aishwarya Rai Bachchan Abhisekh Bachchan

এবার আসা যাক বলিউডের বিশ্বসুন্দরী অভিনেত্রী ঐশ্বর্য রাইয়ের (Aishwarya Rai) প্রসঙ্গে। বর্তমানে অভিনেত্রীর বয়স ৪৭ বছর অথচ  অভিনেত্রীকে দেখে সেটা বোঝা দায়। অভিনেত্রীর মূলত খাবারের পরিমাণ খুবই সীমিত। তবে ফলের রস ও স্বাস্থ্যকর খাবারই মূলত খেয়ে থাকেন তিনি। আর ফাস্ট ফুড বা অতিরিক্ত ক্যালোরির খাবারের থেকে একেবারে দূরত্ব বজায় করেই চলেন ঐশ্বর্য।

Related Articles

Back to top button