বিনোদনভিডিও

সারাক্ষণ শুধু ওভারঅ্যাক্টিং! অটোয় চেপে বাড়ি ফেরার ভিডিও দেখে সারাকে একহাত নিল নেটপাড়া

বলিউড (Bollywood) অভিনেত্রী সারা আলি খান (Sara Ali Khan) কোনও না কোনও কারণে সংবাদমাধ্যমের শিরোনামে উঠে আসেন। কখনও নিজের কর্মজীবনের কারণে, কখনও আবার ব্যক্তিগত জীবনের কারণে আলোচনার বিষয়বস্তু হয়ে ওঠেন তিনি। কয়েকমাস আগে অবধি যেমন ভারতীয় দলের ক্রিকেটার শুভমান গিলের সঙ্গে সারার প্রেমের চর্চা ছিল সর্বত্র। এখন আবার নিজের আসন্ন সিনেমা ‘জারা হটকে জারা বাঁচকে’র (Zara Hatke Zara Bachke) জন্য সংবাদমাধ্যমের শিরোনামে রয়েছেন তিনি।

সারা এমন একজন ব্যক্তিত্ব যিনি নিজের ঠোঁটকাটা স্বভাবের জন্য বেশ জনপ্রিয়। নিজের পছন্দ-অপছন্দের কথা জোর গলায় সর্বসমক্ষে বলার দম রাখেন তিনি। পাশাপাশি নবাব সইফ আলি খানের মেয়ে হলেও তিনি রাজকুমারীর মতো নয়, বরং সাধারণ মানুষের মতো জীবনযাপন করতে ভালোবাসেন। সম্প্রতি যেমন সেকথার প্রমাণ আরও একবার পাওয়া গিয়েছে।

Sara Ali Khan, Sara Ali Khan trolled

সারা এই মুহূর্তে নিজের আসন্ন সিনেমা ‘জরা হটকে জরা বাঁচকে’র প্রচারের কাজ নিয়ে ব্যস্ত আছেন। সম্প্রতি সেই ছবির প্রচার সেরে অটো (Auto) করে বাড়ি ফিরতে দেখা যায় অভিনেত্রীকে। কিন্তু কোটি টাকার লাক্সারি গাড়ি থাকতে কেন অটোয় চাপছেন সারা? জবাবে তিনি বলেন, তাঁর গাড়ি আসতে দেরি করছে সেই জন্য অটোয় করে বাড়ি ফিরছেন তিনি।

বুধবার এক নামী পাপারাৎজি অটোয় চেপে সারার বাড়ি ফেরার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন। সেখানে দেখা যাচ্ছে, গোলাপি রঙের হল্টার-নেক স্যুট পরে রয়েছেন তিনি। সেই ভিডিওতেই সারাকে বলতে শোনা যায়, ‘আমি বেশ কয়েকবার অটোয় চেপেছি। আজ আমার গাড়ি ঠিক সময়ে আসেনি, সেই জন্য অটো করে ফিরতে হয়েছে’।

Sara Ali Khan, Sara Ali Khan trolled, Sara Ali Khan in auto

সারার এই ভিডিও দেখে নেটিজেনদের তরফ থেকে মিশ্র প্রতিক্রিয়া পাওয়া গিয়েছে। কেউ বলছেন, ‘মাত্রাতিরিক্ত ওভারঅ্যাক্টিং’। কারোর আবার মত, অটোয় চেপে সারা পাবলিসিটি স্টান্ট করছেন! যদিও অনেকে অভিনেত্রীর নিরহংকারী স্বভাবের প্রশংসাও করেছেন। একজন যেমন লিখেছেন, ‘সারা মাটির কাছাকাছি থাকা একজন মানুষ’।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Viral Bhayani (@viralbhayani)


অতীতে সারা নিজেও বহুবার বলেছেন, নবাব কন্যা হলেও তিনি সাধারণ মানুষের মতো জীবনযাপন করতেই বেশি পছন্দ করেন। ব্র্যান্ডেড পোশাক কিংবা দামি দামি জিনিসের কোনও প্রতি মোহ নেই তাঁর। বরং আর পাঁচজন সাধারণ মানুষের মতো দরদাম করে জিনিস কিনতেই বেশি ভালোবাসেন তিনি।

Back to top button