গসিপবিনোদনসিনেমা

প্রয়াত হয়েও ছবির মধ্যে দিয়ে আজও জীবিত ইফরান খান, স্ত্রী সন্তানদের জন্য রেখেগেছেন কয়েকশো কোটি

বলিউডে প্রতিবছর একাধিক এমনকি সত্যি বলতে গেলে কয়েকশো ছবি রিলিজ হয়। তবে কিছু ছবি এমন থাকে যা দর্শকদের মনে দাগ কেটে যায়। ছবির অভিনেতা অভিনেত্রীদের দুর্দান্ত অভিনয় মুগ্ধ করে দেয়। এমনই একজন প্রতিভাবান অভিনেতা হলেন ইরফান খান (Irrfan Khan)। প্রতিটি ছবিতে তাঁর অভিনয় আলাদা মাত্রা এনে দিয়েছে কাহিনীকে। তবে অভিনেতা ২০১৮ সালের ২৯ শে এপ্রিল ক্যান্সারের কাছে হার মেনে যান।

বহুমুখী প্রতিভাবান অভিনেতা ইরফান খান ১৯৬৭ সালের ৭ই জানুয়ারি অর্থাৎ আজকের দিনে রাজস্থানের এক গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। দরিদ্র পরিবারের সন্তান ছিলেন অভিনেতা। তবে নিজের অভিনয়ের দৌলতে বলিউডের অভিনেতাদের ভিড়ে নিজেকে সকলের কাছে জনপ্রিয় করে তুলেছেন। বলিউডে এসে খ্যাতির পাশাপাশি টাকাও পেয়েছেন প্রচুর। অভিনয় করেই বেশ কয়েক কোটি টাকার মালিক হয়েছিলেন তিনি।

পান সিং তোমার, দি লাঞ্চ বক্স, তালবার,  হিন্দি মিডিয়াম, পিকু, মাদারী, মেট্রো, দ্য ডে এমন অজস্র দুর্দান্ত ছবি রয়েছে অভিনেতার ঝুলিতে। যা বারেবারে মানুষের মন জয় করেছে। বলিউডের অ্যাকশন হিরো না হলেও নিজের অভিনয় ক্ষমতার জেরেই সেরা ছিলেন অনেকের কাছে। অভিনেতা ১৯৯৫ সালে সুতপা সিকদারকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর তাঁর দুই সন্তান হয় বাবিল খান ও আয়ান খান।

২০১৮ সালে অভিনেতার শরীরে নিউরোএন্ডোক্রাইন ক্যান্সার ধরা পরে। যার চিকিৎিসাও চলছিল, কিন্তু সফল হয়নি। মুম্বাইয়ের কোকিলাবেন ধিরুবাই আম্বানি হাসপাতালে মারা যান তিনি। তবে নিজে চলে গেলেও স্ত্রী ও সন্তানদের ভবিষ্যতের কথা আগে থেকেই চিন্তা করে গিয়েছেন অভিনেতা। ছবি ও বিজ্ঞাপনের দৌলতে যে টাকা উপার্জন করেছেন তা রেখে গিয়েছেন স্ত্রী ও সন্তানদের নামে।

যেমনটা জানা যায় অভিনেতা একটি ছবিতে অভিনয়ের জন্য ১৫ কোটি টাকা পারিশ্রমিক নিতেন। আর বিজ্ঞাপনের জন্য নিতেন ৫ কোটি টাকা। অভিনেতা মোট ৩২০ কোটি টাকার সম্পত্তি রেখে গিয়েছেন স্ত্রী ও সন্তানদের জন্য। যার মধ্যে রয়েছে মুম্বাইয়ের একটি  রাজকীয় বাড়ি, জুহুতে একটি ফ্ল্যাট। এছাড়াও বিএমডব্লিউ থেকে আউডির মত একাধিক বিলাসবহুল গাড়িও রয়েছে।

অভিনেতা মারা যাবার আগে হিন্দি মিডিয়াম ছবির মত আরেকটি ছবি আংরেজি মিডিয়ামে অভিনয় করেছিলেন। সেই ছবিটিও বেশ প্রশংসিত হয়েছে দর্শকমহলে। তবে দুঃখের বিষয় হল সেই ছবিটির রিলিজ নিজ চক্ষে দেখে যেতে পারেননি অভিনেতা। তবে শারীরিকভাবে মৃত্যু হলেও ইরফান খান আজও দর্শকদের মনে নিজের অভিনয়ের মধ্যে দিয়ে বেঁচে আছেন আর আগামী দিনেও থাকবেন একইভাবে।

Related Articles

Back to top button