পারফেক্ট অভিনেতা হলেও রাজকুমারের বিরুদ্ধে অবমাননার অভিযোগ করেছিলেন গোবিন্দা থেকে সালমান


আশির দশকে চলচ্চিত্র জগতের বিখ্যাত সব অভিনেতাদের মধ্যে রাজকুমার (Rajkumar) ছিলেন অন্যতম একজন অভিনেতা। তিনি নিজের অভিনয়ের দক্ষতার দ্বারা দর্শকের মনে অনায়াসেই জায়গা করে নিয়েছিলেন। তাঁর দুর্দান্ত অভিনয় কৌশলী তাঁকে সফলতার শিখরে অনায়াসেই পৌঁছে দিয়েছিলো। তবে রাজকুমার স্বভাবে ছিলেন একটু রূঢ় একজন মানুষ। তিনি অকপটে মনের কথা মুখে এনে ফেলতেন। একটু স্পষ্টভাষী। তিনি কথাবার্তায় কোনো রাখঢাক পছন্দ করতেন না। তাতে সামনে থাকা ব্যাক্তিটি তার কথায় আঘাতপ্রাপ্ত হলেও তাঁর কোনো অসুবিধেই হতো না।

রাজকুমার তাঁর এই স্বভাবের কারণে একসময় কর্মক্ষেত্রে সুপারস্টার গোবিন্দা জি ও বলিউড এর আজকের ভাইজান কে অপমান করেছিলেন। সকলের সামনে তাদের অপমান করেছিলেন রাজকুমার। তিনি তখন একজন বড়ো ষ্টার আর তাই সদ্য জেগে ওঠা নক্ষত্রদের তিনি অপমান করতে কোনো দ্বিধা বোধ করেননি।

Rajkumar

১৯৮৮ সালে “জঙ্গ বাজ” সিনেমায় রাজকুমার এর সাথে গোবিন্দ (Govinda) স্ক্রিন শেয়ার করার সুযোগ পান। সেখানে রাজকুমার গোবিন্দার পরিহিত শার্ট টির প্রশংসা করেন। গোবিন্দা জি বেশ খুশি মনেই রাজকুমার কে নিজের পরিহিত জামাটি খুলে দিয়ে দিয়েছিলেন। তবে পরবর্তী সময় গোবিন্দ হঠাৎ সেট এ দেখতে পান রাজকুমার তার সেই জামাটি কেটে একটি রুমাল করেছেন আর সেই রুমাল দিয়ে রাজকুমার নিজের নাক পরিষ্কার করছেন। গোবিন্দ ঘটনাটি প্রত্যক্ষ করে বেশ অপমানিত বোধ করেন ও মনে মনে খুব কষ্টও পেয়েছিলেন।

Rajkumar Govinda

এরকম ভাবেই একবার বর্তমানের বলিউড এর ভাইজান সালমান খানকেও (Salman Khan) রাজকুমার অপমান করেছিলেন। ১৯৮৯ সালে সালমান খান এর মুক্তি প্রাপ্ত ছবি “ম্যায়নে প্যার কিয়া” যখন চরম সফলতা অর্জন করে তখন সেই ছবির সাফল্য উজ্জাপনে একটি পার্টি রাখা হয় আর সেই পার্টি তে রাজকুমারকেও আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। সদ্য জাগরিত নক্ষত্র সালমান সেই পার্টিতে উপস্থিত রাজকুমারকে চিনতে পারেন না। আর অজান্তেই তাকে পরিচয় জিজ্ঞেস করায় সালমানের উপর রাজকুমার ক্রূদ্ধ হয়ে বলেন তার পরিচয় যেন সে নিজের বাবাকে জিজ্ঞাসা করে।

Rajkumar Salman Khan

সালমান সেখানে বেশ অপমানিত বোধ করেন। তবে এর পর যখনি সালমান এর সাথে রাজকুমার এর দেখা হয়েছে সালমান খান যথেষ্ট সম্মানের সাথে রাজকুমারের সাথে কথা বলেছেন।রাজকুমার অভিনেতা হিসাবে খুবই দক্ষ ছিলেন সে বিষয় নিয়ে কারুর কোনো অভিযোগ না থাকলেও অনেক সহকারী শিল্পীরা তার বিরুদ্ধে তাদের অবমাননা করার অভিযোগ করতেন।