“দৃষ্টিহীন, তবে দিশাহীন নই”, চক্ষু অস্ত্রোপচারের পর আবেগময় পোস্ট অমিতাভ বচ্চন


চোখে অস্ত্রোপচার হয়েছে সম্প্রতি। টানা বিশ্রাম নিতে বলেছেন চিকিৎসকরা। তবুও এরইমধ্যে বিশ্রামহীন বিগ-বি (Big-B)। সোশ্যাল মাধ্যমে (Social Media) আবেগঘন পোস্ট করে বিগ-বি লিখলেন, “দৃষ্টিহীন, তবে দিশাহীন নই।” ইতিপূর্বে করোনা আক্রান্ত থাকাকালীন যেভাবে অমিতাভের (Amitabh Bachchan) পাশে ছিল গোটা নেটদুনিয়া, ঠিক একইভাবে এবারেও বিগ-বির পাশে নেটিজেনরা। যদিও এক জায়গায় থিতু হয়ে বসা যে তাঁর পক্ষে অসম্ভব, তা স্পষ্ট করেছেন বলি শাহেনশা (Bollywood)। অসুস্থ অবস্থাতেই সেলফি (Selfie) আপলোড করলেন তিনি, সঙ্গে জুড়ে দিলেন একটি আস্ত স্বরচিত কবিতা!

অমিতাভ বচ্চন Amitabh Bacchan

নিজস্ব ব্লগে (Blog) অমিতাভ সাফ জানিয়েছেন, “মেডিক্যাল অবস্থা, সার্জারি আর বেশি লিখতে পারছি না!” যদিও কি হয়েছে বিগ-বির, সে বিষয়ে সঠিক তথ্য জানা যায়নি। তবে চোখের কোনও সমস্যা হয়েছে বলেই অনুমান করছে নেটিজেনরা। অস্ত্রোপচারের পর বিগ বি’কে অধিকাংশ সময়েই চোখ বন্ধ রাখতে বলেছেন চিকিৎসকরা। তবে শুয়ে থাকতে একেবারেই রাজি নন বিগ-বি। আগের মতোই সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ সক্রিয় তিনি! সেই সামাজিক মাধ্যমেই ছবি পোস্ট করে হিন্দিতে একটি গোটা কবিতা লিখে ফেলেছেন তিনি। কবিতার মাধ্যমে নিজের যাবতীয় অসুবিধার কথা লিখলেও পাশাপাশি তিনি যে হাল ছাড়তে নারাজ, সেকথাও উল্লেখ করেছেন। যাঁরা এই কঠিন সময়ে তাঁর পাশে থেকেছেন বা থাকবেন, তাঁদের উদ্দেশ্যে করজোড়ে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেছেন অমিতাভ।

অমিতাভ বচ্চন Amitabh Bacchan

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত বছর ‘বিগ বি’ এবং পরিবারের অন্যান্যরা মারণব্যাধির (Corona Virus) প্রকোপে পড়েন। অভিষেক বচ্চন (Abhisek Bachchan), ঐশ্বর্য রাইয়ের (Aishwariya Rai) পাশাপাশি বিগ-বির নাতনি আরাধ্যাও আক্রান্ত হন করোনায়। সূত্রের খবর, হোম কোয়ারানটাইনে ঐশ্বর্য এবং আরাধ্যা হাসপাতালে ভর্তি হতে হয় অমিতাভ এবং ছেলে অভিষেককে। নানাবতী হাসপাতালের চিকিৎসকদের মতে, আটাত্তর বছরের অভিনেতাকে করোনার (COVID-19) কবল থেকে মুক্ত করাটা কার্যত চ্যালেঞ্জ ছিল চিকিৎসকদের কাছে। যদিও সময়ের সাথে সাথে করোনাকে ধরাশায়ী করে বিগ-বি ফিরেছিলেন শুটিং ফ্লোরে। তাই এবারেও যে “বুডঢা হোগা তেররা বাপ!” বলে খুব সহজেই সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক ছন্দে ফিরবেন শাহেনশা, এই বিষয়ে সম্পূর্ণ নিশ্চিত অনুরাগীরা।

 


Like it? Share with your friends!

638
638 points