খবরবিনোদনসিরিয়াল

সুখী দাম্পত্যের ছয় বছর! ক্যানসারজয়ী অভিনেতা ভরত কল, বিবাহবার্ষিকীতে শেয়ার করলেন বিশেষ মুহূর্ত

প্রায় ১১৫টি ছবির পাশাপাশি ধারাবাহিকে চল্লিশ হাজার এপিসোডে কাজ করার অভিজ্ঞতা! এহেন ট্র্যাক রেকর্ডের কথা বললে বাংলা ইন্ডাস্ট্রিতে প্রথমেই নাম আসে ভরত কলের (Bharat Kaul)। বাংলা ধারাবাহিক জগতে বেশ খ্যাতি রয়েছে অভিনেতার। অভিনেতা নিজের জীবনসঙ্গিনী হিসাবে বেঁচে নিয়েছেন জয়শ্রী মুখোপাধ্যায়কে। আজ থেকে ৬ বছর আগে বিবাহ বন্ধনে অবোধ হয়েছিলেন তারা। গত কাল অর্থাৎ ৯ই জুলাই ছিল তাদের ষষ্ঠ বিবাহবার্ষিকী।

বিবাহবার্ষিকী সকল বিবাহিতদের জীবনেই একটা বিশেষ দিন। স্বামী স্ত্রীদের বিবাহবন্ধনে দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে অনেকেই এই দিনটিকে বেশ ধুমধাম করে পালন করেন। আর সেলেব্রিটিদের কাছে এই দিনের গুরুত্ব আরো বেশি পার্টি থেকে শুরু করে এলাহী আয়োজনের মধ্যে দিনে দিন কাটে।  কিন্তু এবছর নিজেদের বিবাহবার্ষিকী একটু অন্যভাবে কাটালেন ভরত কল ও তার স্ত্রী।

Bharat Kaul 6th marriage anniversary ভরত কল বিবাহ বার্ষিকী

জীবনের বিশেষ দিনটিকে সেলেব্রেটি করতে তিন তিনটে দিন বেছে  নিয়েছেন অভিনেতা। আর সেলেব্রেশনের জন্য সপরিবারে চলে গিয়েছে পুরুলিয়া। সেখানেই শুক্র শনি ও রবি তিনদিন কাটাবেন। সোশ্যাল মিডিয়াতে নিজেদের পুরুলিয়া যাত্রার বেশ কিছু ছবি শেয়ার করে নিয়েছেন অভিনেতা। সাথে জানিয়েছেন তাদের বিবাহবার্ষিকীর কথা।

Bharat Kaul 6th marriage anniversary ভরত কল বিবাহ বার্ষিকী

সোশ্যাল মিডিয়াতে অভিনেতা লিখেছেন, ‘৯ই জুলাই ২০১৫তে আমরা বিয়ের সিধান নিয়েছিলাম। আজ আমরা আমাদের  একসাথে ৬ বছরের পথ চলা ভাগ করে নিচ্ছি। হ্যাঁ হাজারো চড়াই উতরাইয়ের মধ্যে দিয়ে যেতে হয়েছে আমাদের। কিন্তু জীবনের প্রতিটি মুহূর্ত ভালোবাসার সাথে কাটিয়েছি। সাথে নিজেদের বেশ কিছু ছবি শেয়ার করেছেন তিনি। যেটা নেটমাধ্যমে বেশ ভাইরাল হয়েছে।

অভিনেতার বিবাহবার্ষিকীতে অসংখ্য ভক্তগণেরা তাদের আগামী দিনের জন্য শুভ কামনা জানিয়েছেন। এদিন বিয়ের বেশ কিছু স্মৃতিও ভিড় করেছে অভিনেতার মনে। যার মধ্যে রয়েছে বিয়ের আগে আশীর্বাদের দিন থেকে তোড়জোড় শুরু হওয়া। এমনকি বিয়ের দিন অতিথিদের থাকার ব্যবস্থা ঠিকমত হয়েছে কিনা সমস্ত কিছু সামলে ছিলেন নিজের হাতেই। তবে বিয়ের পর ছয়টা বছর কেটে গেলেও তাদের সস্পর্ক কিন্তু প্রথমদিনের মতোই রয়েছে।

প্রসঙ্গত টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে অভিনেতাকে লড়াকু অভিনেতা হিসাবেও চেনেন অনেকেই। কারণ একসময় ক্রনিক মাইলয়েড লিউকেমিয়া ধরা পরে অভিনেতার। যেটা এক ধরণের ক্যানসার। দুরারোগ্য ক্যান্সারের সাথে লড়াই করে জিতে ফিরেছিলেন ভরত কল। সেই কারণেই অনেকেই তাকে ‘ক্যাসানোভা’ বলেও ডাকেন।

Related Articles

Back to top button