খবরবিনোদনসিরিয়াল

স্ট্রাগল করে ‘ভানুমতি’তে অভিনয়ের সুযোগ এসেছিল, কাজের অভাবে হারিয়ে গেলেন অভিনেত্রী শ্রেয়শ্রী!

বাঙালি দর্শকদের কাছে সিরিয়ালের আলাদাই একটা জনপ্রিয়তা রয়েছে। এমন বেশ কিছু সিরিয়াল রয়েছে যা মানুষের মন জয় করেছেন বারেবারে। আর সিরিয়ালে দুর্দান্ত অভিনয়ের দৌলতে অনেক অভিনেত্রীরাও দর্শকদের মনে জায়গা তৈরী করেছেন পাকাপাকিভাবে। ‘ভানুমতির খেল (Bhanumotir Khel)’ সিরিয়ালের দৌলতে বেশ জনপ্রিয় হয়েছিলেন অভিনেত্রী শ্রেয়শ্রী রায় (Shreyasri Ray)। পর্দার ম্যাজিক গার্ল হয়ে হয়েছিল দর্শকদের পছন্দের অভিনেত্রী।

একসময় জি বাংলার জনপ্রিয় সিরিয়ালের মধ্যে একটি ছিল এই ভানুমতির খেল সিরিয়ালটি। সিরিয়ালে শ্রেয়শ্রী ও রুবেলের অভিনয় বেশ মনে ধরেছিল সকলের। কিন্তু সিরিয়াল শেষ হবার পর আর দেখা মেলেনি অভিনেত্রীর। যদিও রুবেলকে আবারো পর্দায় দেখা গিয়েছে বেশ কয়েকটি সিরিয়ালে। তবে কি অভিনয় জগৎ থেকে আলাদা হয়ে গেছেন অভিনেত্রী? কেন এমন সিদ্ধান্ত নিলেন তিনি? এমন হাজারো প্রশ্ন রয়েছে তাঁর অনুগামীদের মনে।

সম্প্রতি ২ বছর হয়ে গেলেও কেন আবারো পর্দায় দেখা মিলছে না শ্রেয়শ্রীর তাঁর উত্তর মিলেছে। অভিনেত্রীকে কেন দেখা যাচ্ছে না পর্দায় সে বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল। যার উত্তরে তিনি জানিয়েছেন, প্রস্তাব যে আসেনি তা নয়। বেশ কিছু কাজের প্রস্তাব এসেছিল ঠিকই তবে মুখ্য চরিত্রে কাজের সুযোগ আর আসেনি। আর এটাই প্রধান কারণ টিভির পর্দায় অভিনেত্রীকে না দেখতে পাবার।

শ্রেয়াশরীর মতে, জীবনে অনেকটা স্ট্রাগল করার পর ভানুমতির খেল সিরিয়ালে মূল চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ এসেছিল। একজন অভিনেত্রী হিসাবে নিজের এই জায়গাটা ধরে রাখতে চেয়েছেন তিনি। তাই পার্শ্ব চরিত্রে আর অভিনয় করতে চাননি। অভিনেত্রী আরো জানান, ভানুমতি শেষ হবার পর একাধিক সিরিয়াল নিয়ে কথাবাত্রা চলেছিল। প্রথমে মূল চরিত্র দেওয়ার কথা হলেও শেষে পর্যন্ত অন্য অভিনেত্রীকে নেওয়া হয়েছে।

অভিনেত্রীর মতে, বর্তমানে ইন্ডাস্ট্রিতে অভিনয়টাই সব কিছু নয়। ভালো অভিনয়ের পাশাপাশি ভালো সম্পর্কও থাকতে হবে। যেটা তাঁর পক্ষে করাটা কিকাহতা মুশকিল হয়েছে, তাই একেপির এক কাজ হাতছাড়া হইছে। ভবিষ্যতেও হয়তো কাজ হাছাড়া হবে, তবে সেসব নিয়ে চিন্তিত নন অভিনেত্রী। শ্রেয়শ্রীর মতে, সময় লাগলেও একদিন ঠিকই নিজের অভিনয় ক্ষমতার দৌলতে আবারো কোনো সিরিয়ালে দেখা যাবে তাকে, আর তখন আবারো দর্শকদের মন জয় করতে পারবেন তিনি।

Related Articles

Back to top button